গাজীপুর সিটি নির্বাচন সম্পর্কে যেসব চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলেন হাসান সরকার

গাজীপুর প্রতিনিধি : বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার বলেছেন, গাজীপুরবাসী ৮০ বছরের ইতিহাসে এমন ভোট ডাকাতি দেখেনি। নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ৪’শর অধিক কেন্দ্রে ভোট জালিয়াতি হয়েছে। আওয়ামী লীগের স্বরূপ উন্মোচন করার জন্যই বিএনপি নির্বাচন বয়কট করেনি বলে জানান হাসান সরকার। তিনি অভিযোগ করেন, বিভিন্ন কেন্দ্র দখল ও ভোট জালিয়াতির মাধ্যমে একচেটিয়াভাবে ভোট গ্রহণ হয়েছে গাজীপুরে। বিএনপির এজেন্টদের জোরপূর্বক কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। ভোটাররা স্বাধীনভাবে ভোট দিতে পারেনি। এমন ভোট ইতোপূর্বে গাজীপুরবাসী দেখেনি। এমন নির্বাচনের মাধ্যমে কমিশনকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। এর আগে নির্বাচন চলাকালেই ভোট স্থগিতের দাবি করেছিলেন হাসান উদ্দিন সরকার।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৪২৫ ভোট কেন্দ্রের মধ্যে প্রায় ৪০০ কেন্দ্র দখল করে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকেরা সিল মেরেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার। একটি বেসরকারি টেলিভিশনের লাইভ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে বেলা সোয়া চারটার দিকে তিনি এ অভিযোগ করেন।

এর আগে দ্বিতীয় দফা সংবাদ সম্মেলন করে দুইশতাধিক ভোট কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। মঙ্গলবার বেলা ৩টার দিকে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

এসময় রিজভী বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটারদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। তারা অবৈধ সরকারের নীল নকশা বাস্তবায়নে মূল কাণ্ডারি হয়ে জনগণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে।