হেরোইন পাচার মামলায় সিলেটে দুই জনের ফাঁসির রায়

সিলেট সংবাদদাতা : পাকিস্তান থেকে ডাকযোগে আট কেজি হেরোইন পাচারের মামলায় দুইজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে সিলেটের একটি আদালত। সোমবার দুপুরে সিলেট মহানগর দায়রা জজ মো. মফিজুর রহমান ভূঁইয়া এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন সিলেটের বিয়ানীবাজারের হোসেন আহমদ মানিক ও পারভেজ আলম সুমন। এদের মধ্যে হোসেন আহমদ পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছেন পিপি মফুর আলী। মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি তাদের এক লাখ টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে। মামলার নথির বরাত দিয়ে পিপি জানান, ২০১৪ সালের ৯ মার্চ পাকিস্তানের লাহোর থেকে সিলেটের বৈদেশিক ডাক বিভাগে ৭ কেজি ৯০৫ গ্রাম ওজনের হেরোইনের একটি পার্সেল আসে চারজনের নামে। পার্সেলে উল্লেখিত নাম ঠিকানা যাচাই-বাছাই করে ভুয়া ঠিকানা ব্যবহারের প্রমাণ পাওয়া যায়। “তবে ঠিকানার সঙ্গে লেখা মোবাইল ফোন নম্বরের সূত্র ধরে হোসেন আহমদ মানিক ও পারভেজ আলম সুমনকে শনাক্ত করে পুলিশ। তারা পাকিস্তান থেকে হোরোইন এনে যুক্তরাজ্যে পাচার করতেন।” এ ঘটনায় ওই বছরের ১৯ মে সিলেট বৈদেশিক ডাক বিভাগের শুল্ক ইউনিটের সহযোগী রাজস্ব কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বাদী হয়ে দক্ষিণ সুরমা থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ২ নভম্বের দুইজনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।