মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে এরশাদের বৈঠক নিয়ে টক অব দ্যা পলিটিক্স

 মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শিয়া ব্লুম বার্নিকাটের সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের। শুক্রবার সকালে বারিধারায় প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসভবনে এরশাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বারিধারা কূটনৈতিক জোনে এরশাদের বাসভবনে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত প্রায় দেড় ঘণ্টা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এরশাদের রাজনৈতিক সচিব সুনীল শুভরায় এই তথ্য নিশ্চিত করেন। বৈঠক সম্পর্কে সুনীল শুভরায় বলেন, ‘এটি একটি সৌজন্য সাক্ষাৎ ছিল।’

বৈঠকে জাপা চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সচিব মেজর অব. খালেদ আখতার উপস্থিত থাকলেও দলের কোনো শীর্ষনেতা উপস্থিত ছিলেন না। সাক্ষাতের বিষয়বস্তু জানা যায়নি।

জাতীয় পার্টির সূত্র জানায়, শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে পৌনে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে দলের আর কোনও নেতা উপস্থিত ছিলেন না।

এদিকে বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে জাপার কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেন, ‘আমি এ ধরনের বৈঠকের খবর জানি না।’

বৈঠকে আলোচিত বিষয়বস্তু জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির অবস্থান, নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা, একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে সরকারের পরিকল্পনাসহ আগামী দিনে জাপার কর্মপরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট পার্ক সূত্র বলছে, এ ধরনের কিছু কথাবার্তা হয়ে থাকতে পারে।

এদিকে হঠাৎ করে এরশাদের সঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ ও লম্বা বৈঠক রাজনৈতিক মহলে সৃষ্টি করেছে ব্যাপক কৌতুহল। সবচেয়ে রহস্যজনক বিষয় হলো, বৈঠকে দলের কোনো শীর্ষ নেতা বা খোদ মহাসচিবও উপস্থিত ছিলেন না। এই কারণেই, জাপার শীর্ষ নেতাদের বাদ দিয়ে হঠাৎ মার্কিন রাষ্ট্রদূত বার্নিকাট ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচএম এরশাদের ওয়ান টু ওয়ান বৈঠক টক অব দ্যা পলিটিক্স হিসেবে আলোচিত হচ্ছে।