বাঙ্কারে পালালো ইসরাইলি সেনাবাহিনি!

ফুলকি অনলাইন: ফিলিস্তিনিরা ও ইরানিরা মানসিকভাবে বেশ শক্তিশালী। দখলদার ইসরাইলের ব্যাপারে তারা বরাবরই প্রতিবাদী। আধুনিক অস্ত্রশস্ত্র ছাড়াও ঈমানী বলে বলিয়ান হয়ে তারা প্রতিরোধ গড়ে তুলে।শহীদী তামান্নার কারণে ফিলিস্তিনি নিরস্ত্র কিন্তু বিপ্লবী মুসলমানদেরও ইসরাইলবাসীর কাছে একেকটি টাইম বোমার মতো মনে হয়। ফলে অত্যাধুনিক যুদ্ধাস্ত্র থাকার পরও ইসরাইলবাসী উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় ভুগে।

সম্প্রতি ইসরাইলি স্নাইপারের গুলিতে ফিলিস্তিনি নার্স নিহত হবার ঘটনা ও গাজা উপত্যকায় ইসরাইল কর্তৃক ২টি মিসাইল নিক্ষেপের ঘটনার প্রতিবাদে ফিলিস্তিনিরা ইসরাইলে ২টি রকেট হামলা করে।

ইসরাইলি সেনারা রকেট হামলার খবর আগেই জানতে পারায় ওই এলাকা থেকে তারা স্থানীয় বাসিন্দাদের সরিয়ে নেয়। তাদেরকে বাড়ি থেকে স্থানান্তর করে সেনাবাহিনীর বাঙ্কারে লুকিয়ে ফেলা হয়।

ইসরাইলি সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে রকেট হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তবে এ বিষয়ে এখনো কোনো বক্তব্য দেয়নি ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস।

ইসরাইলি টিভি চ্যানেল ১০ এর প্রতিবেদনে বলা হয়, গাজা উপত্যকার সীমান্তবর্তী ইসরাইলি এলাকায় সম্ভাব্য রকেট হামলায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ফলে ইহুদি বসতিদের সেনা বাঙ্কারে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।