ভোট আকর্ষণে ঘাটতি বাজেট : মোশাররফ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ঘোষিত বাজেট জনকল্যাণমুখী নয়। এই বাজেট নির্বাচনী বছরে ভোট আকর্ষণে ঘাটতি বাজেট। যেটা কখনও বাস্তায়ন সম্ভব হবে না। আমরা ২০১৮-১৯ অর্থবছরের পেশকৃত বাজেট প্রত্যাখ্যান করছি। বৃহস্পতিবার রাজধানীর পুরানা পল্টন এলাকার একটি হোটেলে এক দোয়া ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। বাংলাদশে কল্যাণ পার্টি এই দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে।

জাতীয় সংসদ অধিবেশনে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এ বছরের বাজেটের আকার চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা।

বাজেট পেশের পর বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ঋণের বোঝা বাড়িয়ে ঋণ নির্ভর বাজেটের মাধ্যমে রাজস্ব আদায়ের টার্গেট সম্ভব হবে না। কারণ ঘোষিত বাজেটে ধনীকে আরও ধনী এবং দরিদ্রকে আরও দরিদ্র করার পরিবেশ সৃষ্টি করে দেয়া হয়েছে।

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন আদায়ে ২০ দলীয় জোটকে প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বানও জানিয়ে বলেন, খালেদা জিয়াকে নির্বাচনের বাইরে রাখার ষড়যন্ত্র সফল হবে না।

ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন কল্যাণ পার্টির সভাপতি সৈয়দ ইব্রাহীম। এতে আরও বক্তব্য রাখেন এনপিপি চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, এনডিপি চেয়ারম্যান খন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা, লেবার পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান, ন্যাপ যুগ্ম মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান, বিজেপি মহাসচিব সউদ, বিজেপি (জাফর) প্রেসিডিয়াম সদস্য লিংকন প্রমুখ।