আশুলিয়ায় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের নেতার পাল্টাপাল্টি

আশুলিয়া ব্যুরো : আশুলিয়ায় ইয়ারপুর ইউপির সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা আবু তাহের মৃধা ও যুবলীগ নেতা রাজন ভূঁইয়র মধ্যে এলাকার আদিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে পাল্টা-পাল্টি হামলা ও মামলার অভিযোগ রয়েছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে ইয়ারপুর ইউপির সদস্য আবু তাহের মৃধাগ্রুপ আশুলিয়া থানায় রাজন ভূঁইয়ার লোকজনের বিরুদ্ধে অফিস ভাংচুরের অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানার এসআই মাসুদ রানা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সরজমিনে দেখা যায়, আবু তাহের মৃধার অফিসের গ্লাস ভাংচুর করা, ডিস লাইন ও বিদ্যুতের তার বিচ্ছিন্ন করা। তবে এ ভাংচুর কারা করেছে এলাকাবাসী কেউ বলতে পারেন না বলে অনেকে মন্তব্য করেছে।

অপরদিকে ইয়ারপুর ইউপির যুবলীগের নেতা রাজন ভূঁইয়া ১ জুলাই বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় আশুলিয়ার নরসিংহপুর হাজীপাড়া সোনা মিয়া মার্কেটে পানসিঁড়ি শ্রমিক সমবায় সমিতির মালিক সোহেলকে নিয়ে সমিতির অফিসে যাওয়ার পথে আবু তাহের মৃধাগ্রুপ রাজন ভূঁইয়ার গাড়িতে হামলা করে প্রথমে গাড়ি ভাংচুর করে ও পরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়।

এ ঘটনায় রাজন ভূঁইয়া নিজে বাদী হয়ে ২ জুন আশুলিয়া থানায়, আবু তাহের মৃধা, সালাম মৃধা, ভাতিজা বাহাদুর মৃধা, তাদের সঙ্গীয় রানা, শাওন, সুমন ও সুজনসহ অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জনকে বিবাদী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ভস্মীভূত গাড়িটি থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় আবু তাহের মৃধারসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে। এ ঘটনার ধামাচাপা দিতে আবু তাহের মৃধাগ্রুপ অফিস ভাংচুর করে একটি নাটক সাজিয়েছে বলে যুবলীগ নেতারা জানিয়েছে।

এ ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা মাসুদ রানা জানান, অফিস ভাংচুরের অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল তদন্তে গিয়ে ভাংচুরের সত্যতা পাওয়া গেছে। তবে কারা এ ভাংচুর করেছে তা তদন্ত সাপেক্ষে জানা যাবে।

এ ব্যাপারে রাজন ভূঁইয়া জানান, আবু তাহের মৃধা মিথ্যা মামলা করার জন্যে নিজের অফিসের একটি গ্লাস ভেঙ্গে যুবলীগের নেতাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করার চেষ্টা করছে।

জানতে চাইলে আবু তাহের মৃধা জানান, সে ঢাকায় রয়েছেন। রাজন ভূঁইয়ার লোকজন তার রাজনৈতিক অফিস ভাংচুর করেছে। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানা পুলিশ তদন্ত করে সত্যতা পেয়েছে।