সিংগাইরে ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধিকে হত্যার হুঁমকি দেয়ায় ফার্মেসী মালিক দু’সহোদর গ্রেফতার

সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : সিংগাইরে ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধিকে মারধর ও হত্যার হুঁমকি দেয়ায় পৌর বাজারস্থ মাধবী মেডিক্যাল হলের মালিক আশিষ সরকার (৩৭) ও তার ভাই নবকুমার দিপুকে (২৮) গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।  সোমবার তাদের আদালতে পাঠানো হয়।

জানা গেছে, বাকিতে ঔষধ না দেয়ায় গত ১৫ মার্চ একমি ল্যাবরেটরীজের এমপিও অনন্ত কুমার বর্মনকে মারধর করে আশিষ ও দিপু। পরদিন অনন্ত থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এছাড়া একই কারনে গত ২২ মার্চ দুপুরে স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস এর এমপিও মাহমদুল্লাহকে মোবাইল ফোনে প্রাননাশসহ সিংগাইর ছাড়া করার হুঁমকি দেয় তারা। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে অন্যান্য কোম্পানির প্রতিনিধিদের মধ্যে। ওই রাতেই সিংগাইর উপজেলা ফার্মাসিউটিক্যালস রিপ্রেজেন্টেটিভ অ্যাসোসিয়েশনের (ফারিয়া) সভাপতি মোঃ সোহরাব হোসেন বাদি হয়ে সিংগাইর থানায় সাধারন ডায়েরি করেন। যার নং- ৯৪৫। ডায়েরিটি তদন্তপূর্বক প্রসিকিউশনের জন্য আদালতে পাঠালে বিজ্ঞ আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। রোববার সন্ধ্যায় সিংগাইর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই শাহআলম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে আশিষ ও দিপুকে গ্রেফতার করে।

প্রসঙ্গতঃ উপজেলার বায়রা ইউনিয়নের স্বরুপপুর গ্রামের ভবেশ সরকারের পুত্র আশিষ ও দিপুু স্কুলের গন্ডি না পেরিয়েও ৬ বছর ধরে সিংগাইর সদর বাজারে লাইসেন্সবিহীন ঔষধের ব্যবসা করে আসছে। তাদের বিরুদ্ধে অপচিকিৎসাসহ নিষিদ্ধ ঔষধ বিক্রির অভিযোগ রয়েছে।