বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হলেন খালেকপত্নী

বাগেরহাট সংবাদদাতা : খুলনার নবনির্বাচিত মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের ছেড়ে দেয়া বাগেরহাট-৩ আসনে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুন নাহার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয়েছেন।

সোমবার বিকেলে নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান তালুকদার আনুষ্ঠানিকভাবে মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের স্ত্রীকে জয়ী ঘোষণা করেন।

মো. নুরুজ্জামান তালুকদার বলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুন নাহার ছাড়া আর কেউ এ আসনের উপ-নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেননি। সোমবার বিকেলে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় তাকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

এ সময় বাগেরহাট পৌরসভার প্যানেল মেয়র তালুকদার আব্দুল বাকীসহ আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা জেলা নির্বাচন অফিসে উপস্থিত ছিলেন। বাগেরহাট-৩ আসনে এর আগে তালুকদার আব্দুল খালেক সংসদ সদস্য ছিলেন। তালুকদার আব্দুল খালেক খুলনা সিটি কর্পোরেশনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার জন্য স্পিকারের কাছে তার সংসদ সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি নেন।

এরপর স্পিকার নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিলে ১০ এপ্রিল আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। সেই শূন্য আসনে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয় তালুকদার আব্দুল খালেকের স্ত্রী হাবিবুন নাহারকে। নির্বাচন কমিশনের রোডম্যাপ অনুযায়ী বাগেরহাট-৩ (রামপাল-মংলা) আসনের উপ-নির্বাচনে গত ২৪ মে মনোনয়নপত্র জমা, ২৭ মে বাছাই ও ৩ জুন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ধার্য করা হয়। আর ভোটগ্রহণের দিন ধার্য করা হয় আগামী আগামী ২৬ জুন। কিন্তু এর মধ্যেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়ী হন।