একরামুলের মৃত্যু : তদন্ত শুরুর কথা জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

টেকনাফ উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর একরামুল হকের নিহত হওয়ার বিষয়টি একজন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।  একরামুলের মৃত্যুর পর ফাঁস হওয়া অডিও ক্লিপটি সংগ্রহের চেষ্টা চলছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।  রোববার দুপুরে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির সিদ্ধেশ্বরী ক্যাম্পাসে মাদকবিরোধী প্রচারণা শেষে সাংবাদিকদের করা প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান মন্ত্রী।  মন্ত্রী বলেন, মাদকবিরোধী অভিযানের আগে তালিকা করা হয়েছে। সে লম্বা তালিকা শেষ না হওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কোনো হত্যাই গ্রহণযোগ্য নয়। আর কোনো হত্যাই তদন্তের বাইরে নয়। যেখানে যেটা প্রয়োজন, তদন্ত গঠন তা হচ্ছে। কেউ নিহত হোক, হতাহত হোক তা আমাদের কাম্য নয়। ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। তদন্ত চলছে।  এর আগে মাদকবিরোধী প্রচারণা অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সব ধরনের গোয়েন্দা বাহিনীর সহযোগীতায় তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। আমাদের নিরাপত্তাবাহিনী কাজ করছে।

পাশাপাশি সচেতনতা বৃদ্ধির জন্যে সব ধরনের চেষ্টা চলছে। আমাদের জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, পেশাজীবী, মসজিদের ইমামরা কাজ করছে। সব মানুষকে সম্পৃক্ত করার চেষ্টা চলছে। আমরা ছাত্র সমাজকে এগিয়ে আসার কথা বলছি, এই ভয়ঙ্কর নেশা থেকে নিজেকে যদি নিবৃত করা না যায় তবে সব শেষ হয়ে যাবে, পথ হারিয়ে যাবে।  মন্ত্রী আরও বলেন, অনেক আগে থেকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর মাদকবিরোধী প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে আসছে। সরকারের পক্ষ থেকে মাদকের ভয়াবহতা, ক্ষতিকারক দিক তুলে ধরা হচ্ছে। মাদকের সাথে জড়িত ৮৫ হাজার কারাগারে বন্দি রয়েছে; যা মোট বন্দির ৩ ভাগের এক ভাগ।

কাজেই মাদক সম্পর্কে সবাইকে যুদ্ধে অংশ নিতে হবে। কিছুতেই আমাদের যুবকদের পথ হারাতে দেয়া যাবে না।