এমপিও বাতিল হচ্ছে ২৬ বিদ্যালয়ের

মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় শতভাগ ফেল প্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্ত (সরকারি অর্থ ছাড়) বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এমন নির্দেশনা জারি করা হতে পারে। মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত একটি ফাইল তৈরি হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। সূত্র জানায়, চলতি বছর এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় সাধারণ আটটি বোর্ডে ১৬ স্কুল ও মাদরাসা বোর্ডের অধীনে ৯৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছে। তার মধ্যে আট বোর্ডের আওতাভুক্ত ৭টি ও মাদরাসা বোর্ডের অধীনে ১৯টি এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের এমপিও বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রণালয়।

জানা গেছে, পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর শিক্ষামন্ত্রী সব বোর্ডের চেয়ারম্যানকে নিয়ে বৈঠকে বসেন। সেখানে শূন্য পাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন মন্ত্রী। এরপর শতভাগ ফেল করা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তালিকা তৈরি করে স্ব স্ব বোর্ড। গত ১৩ মে মাদরাসা বোর্ডের আওতাভুক্ত শতভাগ ফেল করা স্কুল কর্তৃপক্ষকে শোকজ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সাধারণ বোর্ডের অধিভুক্ত স্কুলগুলোর কর্তৃপক্ষকে শোকজ দেয়া হয়।

একাধিক বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, শতভাগ ফেল করা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ঢাকা বোর্ডে ৩টি, দিনাজপুর বোর্ডে ৫টি, বরিশাল বোর্ডে ৪টি, রাজশাহী বোর্ডে ২টি, যশোর বোর্ডে ২টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তার মধ্যে ঢাকা বোর্ডের ৩টি, দিনাজপুর বোর্ডের ১টি, বরিশাল বোর্ডের ২টি, রাজশাহী বোর্ডের ১টি ও যশোর বোর্ডের ১টি এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক  বলেন, শতভাগ ফেল করা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে শোকজ দেয়া হয়। তার জবাব শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের (বিদ্যালয়) যুগ্ম সচিব সালমা জাহান  বলেন, আমরা শিক্ষা বোর্ড থেকে পাঠানো শোকজের উত্তর পেয়েছি। তা যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। আমরা মনে করি, শতভাগ ফেল করা প্রতিষ্ঠান প্রয়োজন নেই। এ কারণে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে।

কি ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যেসব প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত তাদের এমপিও বাতিল করা হবে। আর যাদের এমপিওভুক্ত করা হয়নি তাদের অনুমোদন ও স্বীকৃতি বাতিল করা হবে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এমপিও শাখায় এ বিষয়ে চিঠি দেয়া হবে। এর তা বাস্তবায়নে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরকে নির্দেশনা দেয়া হবে বলে জানান এই যুগ্ম সচিব।