৩ বছরের বেশি সময় ঢাকায় থাকা শিক্ষকদের বদলি করুন : প্রধান বিচারপতি

রাজধানীর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে যে সকল শিক্ষক তিন বছরের বেশি সময় ধরে আছেন, তাদের অন্যত্র বদলি করে দেয়ার কথা বলেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন। কোচিং বাণিজ্যে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজধানীর কয়েকটি সরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বদলি সংক্রান্ত এক মামলার শুনানিতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও অধিদফতরের দিকে ইঙ্গিত করে প্রধান বিচারপতি এমন মন্তব্য করেন। একইসঙ্গে কোচিং বাণিজ্য নিয়ে হাইকোর্টের জারি করা রুল আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান জাগো নিইজকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ সংক্রান্ত আবেদনের শুনানি নিয়ে রোববার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান। অন্যদিকে কোচিং সেন্টারের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার তানিয়া আমীর। শুনানির এক পর্যায়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আদালতকে বলেন, অনেক শিক্ষক ঢাকায় ১০-১২ বছর ধরে আছেন। এদের অনেকেই কোচিং বাণিজ্য করছেন। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও অধিদফতরের দিকে ইঙ্গিত করে প্রধান বিচারপতি তখন এ বিষয়ে বলেন, কেন? তিন বছর পরপর তো বদলি করার কথা! তাহলে তো কোচিং বাণিজ্যের জন্য মন্ত্রণালয়-অধিদফতরও দায়ী।