সাভারে ৯৯৯ রক্ষা করেছে সম্ভ্রম হারনো কিশোরীর পরিবারকে

0
সংবাদটি ৮৯ বার পঠিত হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার : সাভারে ৯৯৯ বাড়িছাড়া থেকে রক্ষা করলো সম্ভ্রম হারনো কিশোরীর পরিবারকে। মেয়ের সম্ভ্রম হারানোর প্রতিবাদ করে রীতমতো বিপাকেই পড়েছিলেন আব্দুস সালাম। টু শব্দ করলে লাশ ফেলে দেয়া হবে- এমন হুমকি-ধমকির মুখেই নির্যাতিতা পরিবারটিকে রাতারাতিই বাড়ি ছাড়া করার সকল বন্দোবস্ত করে ফেলে স্থানীয় প্রভাবশালীরা।

তবে জাতীয় জরুরী সেবায় ‘৯৯৯’ নম্বরে ফোন করে রক্ষা পেয়েছে পরিবারটি। ঘটনাস্থল থেকে অসহায় পরিবারটিকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হলেও এখনো গ্রেপ্তার হয়নি আসামীরা। রোববার রাতে সাভারে থানার তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের যাদুরচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, ওই গ্রামে মতি মিয়ার বাড়িতে নিজের পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকতেন গ্রীল মিস্ত্রী আব্দুস সালাম। তিনি জানান, রোববার রাতে তারাবী নামাজের সময় বাড়িওয়ালার বখাটে ছেলে রাজু তার মেয়েকে বাসা থেকে ডেকে নেয়।

পরে দুই সহযোগিসহ ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে রাজু। রাতেই কিশোরী বিষয়টি তার পরিবারকে জানালে আব্দুস সালাম দ্রুত পুলিশকে জানাতে উদ্যত হন। তবে বাধ সাধে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। দেখানো হয় ভয়ভীতি। দুর্বৃত্তদের ভয়ে রাতেই পরিবার নিয়ে বিপাকে পরেন মতি মিয়ার পরিবার। চেষ্টা চালানো হয় সপরিবারে নির্যাতিতাকে গ্রাম ছাড়া করার।

অসহায় অবস্থায় মাঝেই আব্দুস সালাম ‘৯৯৯’ নম্বরে জাতীয় জরুরি সেবায় ফোন করলে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় পুলিশ। রাতেই কিশোরীটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। অবশ্য ততক্ষণে গা ঢাকা দেয় বখাটে রাজু ও তার সহযোগীরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মহসীনুল কাদির জানান, নির্যাতিতা স্কুল ছাত্রীটিকে স্বাস্থ্য পরিক্ষার জন্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।