চট্টগ্রামে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা : চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। দণ্ডিত মো. সোহেল (২৪) নোয়াখালীর চর জব্বার এলাকার আব্দুর রউফ কেরানি বাড়ির নুরুল ইসলামের ছেলে। মঙ্গলবার চট্টগ্রামের মহানগর দায়রা জজ আকবর হোসেন মৃধা এ রায় দেন বলে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি ফখরুদ্দিন চৌধুরী জানান। তিনি বলেন, আসামির বিরুদ্ধে আনা হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত সোহেলকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন। “রায় ঘোষণার পর আদালতের নির্দেশে সোহেলকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।” মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৭ জুন সোহেলের সাথে বিয়ে হয় রুমা আক্তারের (২০)। পতেঙ্গা থানার বিজয়নগর এলাকায় ভাড়া বাসায় স্ত্রী রুনা আক্তারকে নিয়ে থাকতেন সোহেল। ২০১৬ সালের ১৪ জুন বিজয় নগরের ভাড়া বাসায় বালিশ চাপা দিয়ে রুমাকে হত্যা করেন স্বামী সোহেল। ঘটনার পর রুমার বাবা মো. কামাল বাদি হয়ে হত্যা মামলা করেন। এর আগে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতনের অভিযোগ এনে স্বামী সোহেলের বিরুদ্ধে রুমা আক্তার চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা করেন। ওই মামলার পরই ক্ষিপ্ত হয়ে সোহেল বালিশ চাপা দিয়ে রুমাকে হত্যা করেন বলেন রুমার বাবার করা হত্যা মামলায় উল্লেখ করা হয়। ঘটনার তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ৩১ অক্টোবর অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। এরপর ২০১৭ সালের ৩ জানুয়ারি অভিযোগ গঠন করা হয়। মামলায় ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে মঙ্গলবার এ রায় দেয়া হয়।