এসএসসির ফলাফলে আপত্তি জানিয়েছে ৬৩ হাজার ৪০০ শিক্ষার্থী

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে প্রায় সাড়ে ৬৩ হাজার পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল পূনঃর্নিরীক্ষণের জন্য আবেদন করেছে।  এরই ধারাবাহিকতায় তারা এক লাখ ৪১ হাজারের বেশি উত্তরপত্রের নম্বর পরিবর্তন চেয়ে আবেদন করেছেন। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তপন কুমার সরকারের কাছ থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

তিনি বলেন, গত ৬ মে এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর দিন থেকে পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন গ্রহণ শুরু হয়। ১৩ মে পর্যন্ত চলে এ কার্যক্রম। এবার এসএসসি পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেছেন ৬৩ হাজার ৪০০ জন পরীক্ষার্থী। নিয়ম অনুযায়ী আগামী ১৫ দিনের মধ্যে পুনঃনিরীক্ষণের ফল প্রকাশ করা হবে।

তিনি জানান, এ বছর পাশের হার কমে যাওয়ায় গত বছরের চাইতে পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন বেশি এসেছে। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের তথ্যানুযায়ী, প্রতি বছর এসএসসি পরীক্ষার খাতা পুনঃনিরীক্ষণের আবেদনের সংখ্যা বাড়ছে। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৫৫ হাজার ৩৩০ জন। এ বছর তা বেড়ে ৬৩ হাজার ৪০০ জন হয়েছে। গতবারের চেয়ে এবার পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন বেশি পড়েছে ৮০৩০টি।

এদিকে, গত রোববার থেকে একদশ শ্রেণিতে অনলাইন ও এসএমএস’র মাধ্যমে ভর্তি আবেদন গ্রহণ শুরু হয়েছে। আবেদন কার্যক্রম শেষ হবে আগামী ২৪ মে। তবে ফল পুনঃনিরীক্ষণের যাদের ফল পরিবর্তন হবে, তাদের আবেদন আগামী ৫ ও ৬ জুন পর্যন্ত গ্রহণ করা হবে। প্রথম পর্যায়ে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে ১০ জুন। এবার শিক্ষার্থী ভর্তির নিশ্চায়ন না করলে নির্বাচন ও আবেদন বাতিল হবে। এরপর দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ শুরু হবে ১৯ ও ২০ জুন। দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদনের তালিকা প্রকাশ করা হবে ২১ জুন। তৃতীয় পর্যায়ে আবদেন গ্রহণ করা হবে ২৪ জুন। এই পর্যায়ের তালিকা প্রকাশ হবে ২৫ জুন। আনুষঙ্গিক কাজ শেষ করে ২৭ থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত ভর্তি চলবে। আগামী পহেলা জুলাই থেকে একাদশের ক্লাস শুরু হবে।