শর্ত সাপেক্ষে ৩২৪৭টি গাছ কাটার অনুমতি মন্ত্রিসভার

আমদানি করা তেল খালাসে স্থাপনা নির্মাণের জন্য কক্সবাজার ও স্টেডিয়াম নির্মাণের জন্য গাজীপুরে শর্ত সাপেক্ষে সংরক্ষিত বনভূমির ৩ হাজার ২৪৭টি গাছ কাটার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘কক্সবাজারের মহেশখালীতে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের সিঙ্গল পয়েন্ট মুরিং করা হচ্ছে। ওখানে বনে কিছু গাছ আছে সেগুলো কর্তনের অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। ১৯১ দশমিক ২৫ একর বনভূমি লিজ নিয়েছে ইস্টার্ন রিফাইনারি, সেখানে প্রায় এক হাজার ৭০১টি গাছ আছে। বিভিন্ন রকমের বেত জাতীয় ঝোপঝাড় আছে, এগুলোর জন্য কয়েকটা শর্ত দিয়ে ব্যবহারের অনুমতি ওনারা (বিপিসি) পেয়েছেন। একটা প্রথম শর্ত-ভূমি ব্যবহারের জন্য ফিক্সড ডিমান্ড চুক্তির মাধ্যমে প্রতি বছর একর প্রতি ২ হাজার ৪০০ টাকা রাজস্ব দেবে বিপিসি।’

দ্বিতীয় শর্ত- আর বনজ সম্পদের ক্ষতিপূরণ বাবদ এক কোটি ৩৬ লাখ ৭৪ হাজার ৯৪৯ টাকা দিতে হবে। এই টাকা বিপিসি অলরেডি পরিশোধ করে ফেলেছে।

তৃতীয় শর্ত- যে পরিমাণ গাছের ক্ষতি হল এর পাঁচগুণ গাছ বন অধিদফতরের তত্ত্বাবধানে বিপিসি রোপণ করবে। সেটা আগামী ১০ বছরের জন্য মেইনটেইন করবে তারা।

এসময় তিনি আরো বলেন, ‘মন্ত্রিসভার আলোচ্য বিষয় ছিল গাছ কাটার অনুমতি দেয়া। জমিটা ছিল সংরক্ষিত বনের। আর গাছগুলো ছিল সামাজিক বনায়নের। যারা ক্ষতিগ্রস্ত তারা নীতিমালা অনুযায়ী টাকা পাবেন। সামাজিক বনায়নে যারা গাছ লাগান তারা এর ৭০ শতাংশ এবং অন্যরা ৩০ শতাংশ পেয়ে থাকেন।’