সিংগাইরে ট্রাক চাপায় প্রাণ গেল স্কুল ছাত্রের, স্যারের বিদায় অনুষ্ঠানের আগেই চির বিদায় নিতে হলো রতনকে

সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : শনিবার ভোর বেলায় বাড়ি থেকে কোন কিছু মুখে না দিয়ে প্রাইভেট শিক্ষকের বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজনের কেক কিনতে  গিয়ে পৃথিবী হতে চির বিদায় নিলেন স্কুল ছাত্র রতন (১২)। যমদূত ট্রাকের চাপায় অকালে ঝড়ে গেল তার প্রাণ। শনিবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে হেমায়েতপুর-সিংগাইর- মানিকগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের জায়গীর মাদ্রাসার সামনে ট্রাক চাপায় তার মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটে। নিহত রতন উপজেলা ধল্লা ইউনিয়নের আঠালিয়া গ্রামের প্রবাসি আহাদনূরের পুত্র ও স্থানীয় ভূমদক্ষিণ উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে ৭ টারদিকে রতন ও তার প্রতিবেশী চাচাত ভাই বিপ্লবকে (১১) বাইসাইকেলযোগে ভূমদক্ষিণ বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন। জায়গীর মাদ্রাসার সামনে পৌঁছানো মাত্র পেছনদিক থেকে দ্রুতগতিতে আসা ট্রাক তার সাইকেলকে ধাক্কা মারে। এ সময় সাইকেল থেকে ছিঁটকে পড়ে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে রতনের মৃত্যু ঘটে। তার সঙ্গে থাকা ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র বিপ্লব হোসেন মারাত্মক আহত হয়। নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রতনের প্রাইভেট টিউটর রাকিব হোসেনের অন্যত্র চাকরি হওয়ায় শনিবার রতনসহ আরো ছাত্ররা মিলে তার বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ওই অনুষ্ঠানের কেক আনতে গিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দু‘ভাইয়ের মধ্যে রতন বড়। তার বাবা আহাদনূর সৌদি আবর প্রবাসি। ছেলের মৃত্যুতে মা রত্না বেগম সঙ্গাহীন হয়ে পড়েছেন। পরিবারে বইছে শোকের মাতম। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ ট্রাক কিংবা চালককে আটক করতে পারেনি।

এ ব্যাপারে ভূমদক্ষিণ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবু বক্কার সিদ্দিক বলেন, রতনের অকাল মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। আজ রবিবার  সকাল  ৯টায় স্কুলের পক্ষ থেকে মানববন্ধন কর্মসূচীর দেয়া হয়েছে।