গল্প শেষে ঘুমের দেশের সেঞ্চুরি পর্বে রাহুল আনন্দ

এই প্রথম বাংলাদেশের কোনো শিশুতোষ ধারাবাহিকের ১০০তম পর্ব প্রচারিত হচ্ছে। দুরন্ত টিভি’র জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘গল্প শেষে ঘুমের দেশে’ সেঞ্চুরি করছে। ১২ মে প্রচারিত হবে ধারাবহিকটির ১০০তম পর্ব।

ধারাবাহিকটিতে দেখা যায় পরিবারের শিশুরা প্রতিদিন রাতের সব কাজ শেষে ঘুমাতে যাওয়ার আগে তাদের মা-বাবা, দাদা-দাদী, নানা-নানী বা মামা, খালা, ফুপুর কাছে গল্প শোনার বায়না ধরে এবং গল্প শেষে তারা ঘুমাতে যায়। গল্প বলার সময় প্রতিটি গল্পে চরিত্র অনুসারে এক বা একাধিক পাপেট উপস্থিত হয় এবং সেও গল্প বলা বা শোনায় অংশ নেয়।

ধারাবাহিকের ১০০তম পর্বে প্রচারিত হবে সুকুমার রায়ের গল্প ‘পাগলা দাশু’। গল্প বলবেন রাহুল আনন্দ এবং গল্প শুনবে তোতা, শ্রেয়ান, অর্ণব। ‘গল্প শেষে ঘুমের দেশে’র এই মৌসুমে শিশুদের গল্প শুনিয়েছেন আরও ২২ জন অভিনয় শিল্পী। তারা হলেন ড. ইনামুল হক, লাকী ইনাম, আল মনসুর, শর্মিলী আহমেদ, তারিক আনাম খান, ফজলুর রহমান বাবু, নীমা রহমান, শহীদুজ্জামান সেলিম, রোজী সিদ্দিকী, আজাদ আবুল কালাম, বন্যা মির্জা, স্বাগতা, সাব্বির আহমেদ, শাহরিয়ার নাজিম জয়, ফারহানা মিঠু, মাজনুন মিজান, তানিয়া আহমেদ, সাবেরী আলম, শাহনাজ খুশী, নায়লা আজাদ নূপুর, নাবিলা ইসলাম, নাদিয়া আহমেদ। দুরন্ত টিভিতে ধারাবহিকটি প্রচারিত হয় প্রতিদিন রাত ৯ টায়।

‘গল্প শেষে ঘুমের দেশে’-এর নতুন মৌসুমে নতুন ২৯ জন শিশু অংশ নিয়েছে। ধাবাবাহিকটি যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন ফাহিমা আহমেদ চৈতী এবং মেহেদী হাসান স্বাধীন।