রাঙামাটিতে ৬ খুন: প্রসিত খীসাকে আসামি করে মামলার আবেদন

রাঙামাটি সংবাদদাতা : রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় চেয়ারম্যান পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (এমএন লারমা) নেতা শক্তিমান চাকমা ও তার শেষকৃত্যে যাওয়ার সময় পাঁচজনকে গুলি করে হত্যায় ইউপিডিএফ প্রধান প্রসিত বিকাশ খীসাকে প্রধান করে মামলার আবেদন করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে নানিয়ারচর থানায় পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করা হলেও তা নথিভুক্ত হয়নি বলে জানান রাঙামাটির পুলিশ সুপার মো. আলমগীর কবির। জেএসএসের (এমএন লারমা) ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক সুদর্শন চাকমা জানান, শক্তিমান চাকমা হত্যায় তার সহকারী জেএসএস (এমএন লারমা) নানিয়ারচর উপজেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রূপম চাকমা বাদী হয়ে প্রসিত খীসাসহ ৪৬ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় অভিযোগ জমা দিয়েছেন। আর ইউপিডিএফের (গণতান্ত্রিক) নেতা তপনজ্যোতি চাকমা বর্মাসহপাঁচজন হত্যায় নীতিপূর্ণ চাকমা অর্চিন বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। ইউপিডিএফের (গণতান্ত্রিক) দপ্তর সম্পাদক লিটন চাকমা জানান, ইউপিডিএফ সভাপতি প্রসিত বিকাশ খীসা, সাধারন সম্পাদক রবি শংকর, কেন্দ্রীয় নেতা সচিব চাকমা, শান্তিদেব চাকমাসহ ৭২ জনের নাম উল্লেখ করে অভিযোগটি দায়ের করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার বলেন, “দুইটি অভিযোগ থানায় জমা হয়েছে। তবে এখনও নথিভুক্ত হয়নি। সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া শেষে এ বিষয়ে কথা বলা যাবে।” গত ৩ মে নিজ কার্যালয়ে যাওয়ার পথে গুলিতে নিহত হন নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা। পরের দিন তার শেষকৃত্যে যাওয়ার পথে হামলায় নিহত হন ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) প্রধান তপনজ্যোতি চাকমা বর্মাসহ পাঁচজন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ছয় খুনের ঘটনায় ছয়দিন পর মামলার আবেদন হল।