প্রধান শিক্ষক হচ্ছেন প্রাথমিকের ১১৮৭ জন

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক চলতি দায়িত্বে তিন জেলায় ১১৮৭ জন সহকারী শিক্ষককে পদোন্নতি দেয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহে এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হবে বলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে।  মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গত সপ্তাহে মাগুরা ও যশোর জেলায় প্রধান শিক্ষক পদে চলতি দায়িত্বপ্রাপ্তদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহে কুমিল্লা, নোয়াখালী ও গোপালগঞ্জ জেলার তালিকা প্রকাশ করা হবে। গত সপ্তাহে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর থেকে জ্যেষ্ঠ শিক্ষকদের তালিকা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে তা যাচাই বাছাই চলছে।  জানা গেছে, তিন জেলার মধ্যে কুমিল্লা জেলার ১৬টি উপজেলায় ৬২৮ জন, নোয়াখালী জেলার ৯টি উপজেলায় ৩৬৮ জন এবং গোপালগঞ্জের পাঁচটি উপজেলায় ১৯১ জন শিক্ষকের নাম চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহে এ সংক্রান্ত আদেশ জারির প্রস্তুতি চলছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জারিকৃত আদেশ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালকের কাছে পাঠানো হবে। তালিকাভুক্ত শিক্ষকদের পদোন্নতি দিতে সেটি স্ব স্ব জেলার জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হবে।   এ বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. এ এফ এম মনজুর কাদির জাগো নিউজকে বলেন, জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে কুমিল্লা, নোয়াখালী ও গোপালগঞ্জ জেলার তালিকাভুক্ত শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষক পদে চলতি দায়িত্বে পদোন্নতি দেয়া হবে। আগামী সপ্তাহে এই তিন জেলার তালিকাভুক্ত শিক্ষকদের আদেশ জারি করা হবে।  তিনি বলেন, এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। অন্যান্য জেলা থেকে শিক্ষকদের গ্রেডেশনের তালিকা পেলে সেখানেও প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে সহকারী শিক্ষকদের চলতি দায়িত্বে বসানো হবে।  জানা গেছে, জ্যেষ্ঠ শিক্ষকদের তালিকা প্রণয়নে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরকে দায়িত্ব দেয়া হয়। সে তালিকার ভিত্তিতে মন্ত্রণালয় থেকে যোগ্য শিক্ষকদের পদায়নে অনুমোদন দেয়। অধিদফতর সেসব শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষক পদে পদায়ন করে থাকে।