রাজশাহীতে ভুল চিকিৎসায় শিশু মৃত্যু, হাসপাতালে স্বজনদের হাতাহাতি

রাজশাহী সংবাদদাতা : রাজশাহী নগরীর পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভুল চিকিৎসায় রাফি নামের ১০ মাস বয়সী এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার রাতে নগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকায় ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এ নিয়ে চিকিৎসকদের সঙ্গে শিশুটির স্বজনদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু রাফির বাবা সোহেল রানা নগরীর দড়িখরবোনা এলাকার বাসিন্দা। স্বজনরা জানায়, নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত রাফিকে ২৪ এপ্রিল পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসক সানাউল্লাহকে প্রথম দেখানো হয়। ওই দিন তিনি শিশুটিকে কিছু ওষুধ দেন। এরপরও শিশুটির নিউমোনিয়া ভালো না হয়ে আরো অসুস্থ হয়ে পড়ে। গতকাল বিকেলে শিশুটিকে আবারও পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারে একই চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান স্বজনরা। এ সময় চিকিৎসক সানাউল্লাহ শিশুটিকে অক্সিজেন দিতে বলে দ্রুত তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন। হাসপাতালে যাওয়ার পরে শিশুটি মারা যায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শিশুটি মারা যাওয়ার পরে স্বজনরা পপুলারে ফিরে গিয়ে চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগ এনে চিকিৎসক সানাউল্লাহর ওপর চড়াও হন। এ নিয়ে তর্কাতর্কির একপর্যায়ে চিকিৎসকের সঙ্গে শিশুটির স্বজনদের হাতাহাতি শুরু হয়। এ সময় পপুলারের কর্মচারীরাও এসে রোগীর স্বজনদের পেটাতে থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, শিশুর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে স্বজনদের সঙ্গে চিকিৎসকের ঝামেলা হলেও পরে উভয়পক্ষ বসে বিষয়টি মীমাংসা করে নিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে চিকিৎসক সানাউল্লাহর সঙ্গে কথা বলার জন্য যোগাযোগ করা হলেও তিনি কথা বলতে রাজি হননি।