সিংগাইরে ইউপি চেয়ারম্যান ডাকাতির কবলে , গ্রেফতার ১

সিংগাইর(মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : সিংগাইর উপজেলার বাস্তা-মাানিক নগর সড়কে গত সোমবার ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ডাকাত দলের ভেটু (৩০) নামের এক ডাকাতকে গ্রেফতার করেছেন। গ্রেফতারকৃত ভেটু বগুড়া জেলার গাবতলী উপজেলার ক্ষিরাপাড়া গ্রামের মোঃ জামালের পুত্র। জানা যায় , ওই দিন দিবাগত রাত সাড়ে ১০ টার দিকে বাস্তা-মানিক সড়কের হাতনী চকে ১৫-২০ জনের সংঘবন্ধ ডাকাত দল রাস্তার ভিতরে গাছ ফেলে চান্দহর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা শওকত হোসেন বাদলের প্রাইভেটকারে হামলা করে। তার গাড়িতে থাকা মনির , নাসির ও ড্রাইভারকে মারধর করে। এ সময় রাস্তাটির দুই দিক থেকে আসা ২টি মোটর সাইকেল , ৩টি সিএনজি ও একটি মাইক্রোবাসের যাত্রীদের কাছ থেকে টাকা-পয়সা , মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে ডাকাত দল ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। জনৈক সিএনজি চালক ডাকাত দলের সদস্য ভেটুকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করে। ডাকাতির কবলে পড়া চেয়ারম্যান শওকত হোসেন বাদল বলেন , ইউনিয়ন পরিষদের কাজ শেষে ঢাকার বাসায় ফিরছিলাম। হাতনীর চকে চেক পোষ্টে পুলিশ না থাকায় ডাকাতরা এ সুযোগে “ডাকাত পোষ্ট” বানিয়ে পরিবহবণে গণডাকাতি করে। তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন, ওই স্থানে এ ধরণের একাধিক ঘটনা ঘটেছে । আমি পুলিশকে টহল জোরদার করতে একাধিক বার বললেও তার ফল পায়নি। এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার অন্তর্গত শান্তি (বাঘুলি) তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোঃ কামরুজ্জামান বলেন, ডাকাতির সাথে জড়িত একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।