ভিসির ভবনে হামলাকারীরাই মামলা প্রত্যাহার চায়: হাছান

‘সরকারি নিয়োগে কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাসভবনে হামলার ঘটনায় মামলা প্রত্যাহারের দাবিকারীরা হামলার সাথে যুক্ত থাকতে পারে’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ।  তিনি বলেন, তরুণ সমাজের প্রতি সম্মান রেখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কোটা পদ্ধতি বাতিল করে দিয়েছেন। কিন্তু এখন তারা ভিসির বাসভবনে হামলার ঘটনার মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছে। এঘটনায় জনগণ মনে করছে মামলা প্রত্যাহারের দাবিকারীরা এ হামলার সাথে যুক্ত থাকতে পারে।  মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) দুপুরে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে মুক্তিযুদ্ধ একাডেমী ট্রাস্ট এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী আয়োজিত মুজিবনগর দিবস-২০১৮ উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।   আওয়ামী লীগের এ মুখপাত্র বলেন, যারা উপাচার্যের বাসভবনে হামলা করেছে এবং যারা এর পেছন থেকে কলকাঠি নেড়েছে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হোক। তাদের বিচার নিশ্চিত করতে হবে। এই আন্দোলনের পেছনে খেলা ছিলো, সেই খেলা ভেস্তে গেছে বিধায় নানান ধরণের কথাবার্তা ছড়ানো হচ্ছে।  হাছান মাহমুদ বলেন, যুদ্ধাপরাধীর একটি চক্র এখনও বিভিন্নভাবে দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে। আর এসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে বিএনপির নেত্রী খালেদা জিয়া।  মুক্তিযুদ্ধ একাডেমী ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ড. আবুল আজাদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী (বীর বিক্রম), অ্যাডভোকেট. ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পী, সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার কবি আজিজুর রহমান, ঢাকায় রুশ বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্রের পরিচালক আলেকজান্ডার পি. ডেমিনসহ আরো অনেকে।