কালিয়াকৈরে মটরসাইকেল চুরিকে কেন্দ্র করে দু’ গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ২০, ইউপি সদস্যসহ গ্রেফতার ২

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সাজনধারা এলাকায় মটরসাইকেল চুরিকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুরে দুগ্রুপে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে নারীসহ উভয় গ্রুপে কমপক্ষে ২০ জন মারাত্মক আহত হয়েছে। আহতদের কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মোঃ সফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দায়েরের পর ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ইউপি সদস্য মোঃ জসিম উদ্দিন ও তার ভাই ফারুককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ি থেকে উপজেলার সাজনধারা গ্রামের মৃত মারফত আলীর পুত্র মোঃ জহিরুল ইসলামের একটি মটর সাইকেল চুরি হয়। পরে পার্শ্ববতী ঢাকা জেলার ধামরাই বাজার থেকে চোরাই মটরসাইকেলসহ কালিয়াকৈর উপজেলার সাজনধারা গ্রামের সেলিম ও আমিনুলকে ধামরাই থানা পুলিশ আটক করে। খবর পেয়ে জহিরুল ইসলাম ধামরাই থানা পুলিশকে বৈধ কাগজপত্র দেখিয়ে তার চোরাই মটরসাইকেলটি উদ্ধার করে নিয়ে আসে। এলাকায় এসে জহিরুল তার মটরসাইকেল সেলিম ও আমিনুল চুরি করেছে বলে স্থানীয় বলিয়াদী বাজারে প্রচার করে। এ সময় সেলিম ও আমিনুলের লোকজনের সাথে জহিরুলের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সেলিম ও আমিনুলের লোকজন মটর সাইকেল এর মালিক জহিরুল ইসলামের উপর চড়াও হয়ে লাঠি-সোটা নিয়ে আক্রমন করতে আসলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের কমপক্ষে ২০জন মারাতামক আহত হয়। সংঘর্ষে আহত কামাল হোসেন (৩০), জহিরুল ইসলাম (৩৫), আছর উদ্দিন (৪৫), আঃ হামিদ (৪২), মোঃ হেলাল উদ্দিন (৩৫), মোঃ ফজলুল হক (৫৮), মোঃ জালাল উদ্দিন (৫৫), আলী হোসেন (৪০), রুবেল মিয়া (৩৫), হাজেরা আক্তার (৪৫), মোক্তার আলী (৪৬), শামসুল হক (৪৮), মিন্টু মিয়া (৩০), তাহেরা বেগম (৪২) ও মানিক বেপারীকে (৪৮) কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এঘটনায় মোঃ সফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দায়েরর পর পুলিশ উপজেলার ঢালজোড়া ইউনিয়নের সদস্য মোঃ জসিম উদ্দিন ও তার ভাই মোঃ ফারুককে গ্রেফতার করেছে। কালিয়াকৈর থানার ওসি মোঃ রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এঘটনায় মোঃ সফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতারকৃতদের গাজীপুর কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।