আশুলিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ড্রাইভারকে পিটিয়ে হত্যা

আশুলিয়া ব্যুরো : আশুলিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফরিদ মিয়া নামের (৩৫) এক ক্যাভার্ড ভ্যানের ড্রাইভারকে পিটিয়ে হত্যা করেছে একই বাড়ির ভাড়াটিয়ারা। এঘটনার পর থেকে ওই ভাড়াটিয়ারা পলাতক রয়েছে। নিহত ড্রাইভার ফরিদ মিয়া জামালপুর জেলার মেলান্দহ থানার গ্রাম ব্রামণপাড়া গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে।

এলাকাবাসী জানায়, ফরিদা মিয়া ও তার স্ত্রী আশুলিয়ার টঙ্গাবাড়ি এলাকায় আসাদুজ্জামানের বাড়িতে একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে থাকতেন। তার রুমের সাথে লিটন মিয়া নামের আরেক ভাড়াটিয়া থাকতো। পরে শুক্রবার রুমের দরজা খোলা লিটন মিয়া ও তার সঙ্গিরা ক্যাভার্ড ভ্যানের ড্রাইভার ফরিদ মিয়াকে এলোপাথারীভাবে পিটিয়ে আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে ধউর এলাকায় ইস্ট ওয়েস্ট মেডিক্যালে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান। এঘটনার পর থেকে বাড়ির মালিক আসাদুজ্জামান কৌশলে হত্যাকারী লিটন ও তার সঙ্গিদের পালিয়ে যেতে সাহায্য করে বলে অভিযোগ করেন এলাকাবাসী। পরে খবর পেয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তার লাশ উদ্ধার।

আশুলিয়া থানার (এসআই) রুহুল আমিন বলেন, এ ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির মালিক আসাদুজ্জামানকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। হত্যাকারীদের আটক করার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে। এঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।