মাত্র ছয়’শ রোহিঙ্গাকে গ্রহণ করতে রাজি মায়ানমার

ফুলকি ডেস্ক : বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য আট হাজার রোহিঙ্গার একটি তালিকা দিয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু তাদের সবাইকে গ্রহণ করতে রাজি নয় মায়ানমার। মিয়ানমারের ইমিগ্রেশন ও পপুলেশন ডিপার্টমেন্টের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন তারা বাংলাদেশ থেকে ৬৭৫ জন শরণার্থীকে ফেরত নিতে প্রস্তুত আছে। ওই কর্মকর্তার নাম মিন্ট কায়িং এবং তিনি ওই দপ্তরের স্থায়ী সচিব।

মায়ানমারের সংবাদমাধ্যম মিজিমায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে মিস্টার কায়িংকে নিশ্চিত করেছেন যে বাংলাদেশ থেকে ৮ হাজার ৩২ জনের তালিকা দেয়া হলেও তারা এর মধ্যে আটশ জনেরও মতো রোহিঙ্গার নাম অনুমোদন করেছেন। তিনি জানিয়েছেন যে বিষয়টি ইতোমধ্যে বাংলাদেশকেও জানিয়ে দিয়েছেন তারা। যে আটশ জনের নাম মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ অনুমোদন করেছেন মিস্টার কায়িং এর দাবি এর মধ্যে ৬৮৫ জন মায়ানমারে বসবাস করতো আর দশজনের মতো আছে যারা সেখানকার সহিংসতায় অংশ নিয়েছে। তিনি বলছেন, তালিকায় থাকা দশজন সন্ত্রাসীকে বাদ দিয়ে ৬৭৫ জনকে আমরা গ্রহণ করবো। আটশ জনের মধ্যে আর বাকী ১২০ জন বাংলাদেশে যাওয়ার আগে মায়ানমারে বসবাস করতো এমন কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি। এর আগে বাংলাদেশ মায়ানমার আলোচনার পর বাংলাদেশের তরফ থেকে আট হাজার জনের একটি তালিকা মায়ানমার কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছিলো।