আমার মনে হয় দেশ আওয়ামী লীগ সরকার চালাচ্ছে না: ফখরুল

 সরকার চালাচ্ছে কে এমন প্রশ্ন রেখে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমার মনে হয় দেশ আওয়ামী লীগ সরকার চালাচ্ছে না। কোনো রাজনৈতিক দল দেশ চালালে বিরোধী দলের প্রতি এমন নির্যাতনমূলক আচারণ করতে পারে না। ভোটের অধিকার কেড়ে নিতে পারে না। অগণতান্ত্রিক পন্থা অবলম্বন করতে পারে না।  বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।  মির্জা ফখরুল বলেন, যখন আমি হাসপাতালে ভর্তি তখন আমাকে নিয়ে মনগড়া নিউজ করা হয়েছে। এতে শুধু একটা দল বা ব্যক্তি নয়, গোটা জাতির ক্ষতি হয়। তাই আমি আহ্বান জানাবো এমন কোনো সংবাদ প্রচার না হয় যাতে দেশের মানুষ বিভ্রান্ত হয়।   তিনি বলেন, দলের সবাই একসাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করছি। আগের চেয়ে অনেক বেশি ঐক্যবদ্ধ আছি আর সেটি সরকারের পছন্দ হচ্ছে না।  বিএনপি এ নেতা বলেন, আমরা চাই সত্যিকারের একটি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে। কিন্তু বর্তমানে যা চলছে তাতে দেশে গণতন্ত্রের লেশমাত্র নেই। সেই জন্য লড়াই করছেন বেগম খালেদা জিয়া। আমরা দেশে সত্যিকারের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে চাই।  দুদকের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সরকারের ইচ্ছা পূরণে কাজ করছে। সরকার যে ভাবে চায় তারা সেভাবে কাজ করছে। এখন আমাদের দলের ৮ নেতার চরিত্র হনন করতে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করছে। তারা নাকি ১২৫ কোটি টাকা অবৈধ লেনদেন করেছেন? আমি বলবো দুদকের এ অভিযোগ মিথ্যা বানোয়াট মনগড়া।  তিনি বলেন, সরকারের যারা দুর্নীতির অভিযোগে সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে তারা কোনো পদক্ষেপ নিতে পারেনি। যারা রাষ্ট্রের অর্থ পাচার করছে, ব্যাংক লুট করছে, শেয়ারবাজার ধ্বংস করেছে তাদের বিষয়ে দুদক কোনো পদক্ষেপ নিতে পারেনি। এমনকি যারা সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন তারা এখনও মন্ত্রী পদে বহাল আছেন। এদের বিরুদ্ধে দুদক কোনো ব্যবস্থা নেয় না।  জোটের বিষয়ে তিনি বলেন, ২০ দল আগেও ছিলো এখনও আছে। আমরা ঐক্যবদ্ধ ছিলাম, আছি। আমরা দলীয় ও জোটগতভাবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন ও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আন্দোলন করছি।  এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি।