এবার প্রাথমিকে বৃত্তি পেয়েছে ৮২৪৯৮ শিক্ষার্থী

স্টাফ রিপোর্টার : প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীর বৃত্তির ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এবার সর্বমোট (মেধা ও সাধারণ কোটায়) বৃত্তি পেয়েছে ৮২৪৯৮ জন শিক্ষার্থী। এ বছর মেধা কোটায় (ট্যালেন্টপুলে) বৃত্তি পেয়েছে ৩২ হাজার ৯৯৮ জন শিক্ষার্থী। আর সাধারণ কোটায় বৃত্তি পেয়েছে ৪৯ হাজার ৫০০ জন। বৃত্তির ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ঝরে পড়া রোধ, শ্রেণিকক্ষে উপস্থিতি বৃদ্ধি ও সুষম মেধাবিকাশে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে এ বৃত্তি দেওয়া হয়েছে। বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীরা অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত ট্যালেন্টপুলে যারা মাসে ৩০০ টাকা করে এবং সাধারণ কোটায় বৃত্তিপ্রাপ্তরা মাসে ২২৫ টাকা করে পাবে। এবার দুজন কাঙ্ক্ষিত শিক্ষার্থী পাওয়া যায়নি জানিয়ে মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মেধা কোটায় ৩৩ হাজার ও সাধারণ কোটায় ৪৯ হাজার ৫০০ মিলিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে মোট ৮২ হাজার ৫০০ শিক্ষার্থীর বৃত্তি পাওয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু এবার মেধা কোটায় দুই জন এবং সাধারণ কোটায় ২৫ জন কাঙ্ক্ষিত শিক্ষার্থী পাওয়া যায়নি। তবে পরে এই ২৭টি বৃত্তি সমন্বয় করা হবে। তিনি বলেন, ‘বৃত্তিপ্রাপ্তদের সংখ্যা বাড়ানোর পাশাপাশি বৃত্তির টাকার পরিমাণও বেড়েছে। এক সময় মেধা কোটায় বৃত্তি দেওয়া হতো ২০০ টাকা, ২০১৫ সাল থেকে তা ৩০০ টাকা করা হয়েছে। অন্যদিকে, সাধারণ কোটায় আগে ১৫০ টাকা বৃত্তি দেওয়া হতো, ২০১৫ সাল থেকে দেওয়া হচ্ছে ২২৫ টাকা।’ মন্ত্রী বলেন, বর্তমান শিক্ষাবান্ধব সরকার প্রাথমিক শিক্ষার সার্বিক উন্নয়নে বদ্ধপরিকর। এরই ধারাবাহিকতায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ, উপবৃত্তি প্রদান, মিড ডে মিল চালুকরণ, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, অতিরিক্ত শ্রেণিকক্ষ নির্মাণ, পাঠদান আকর্ষণীয় করতে ক্লাসরুমে মাল্টিমিডিয়া সংযোজন, ডিজিটাল কন্টেন্ট তৈরির জন্য প্রশিক্ষণ প্রদান, বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের জন্য বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ, শিক্ষক শূন্যতা পূরণে প্যানেল ও গুণগতমান উন্নয়নে শিক্ষকদের অভ্যন্তরীণ ও বিদেশ প্রশিক্ষণসহ নানা রকমের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। পিইসির ফলাফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান তারই অংশ বিশেষ। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে িি.িফঢ়ব.মড়া.নফ ফলাফল পাওয়া যাবে। সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ আসিফ-উজ-জামান, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব আকরাম-আল-হোসেন, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবু হেনা মোস্তফা কামালসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।