বিপন্ন মানবতা—হামিদ সরকার

আজকে দুই হাজার শতাব্দীর পরেও

আমার বিবেক পরাভুত।

পূর্যদস্ত যখন দেখি বিপন্ন মানবতা

আসলে বিবেচনাবিহীন ঐ মানুষগুলোর

কাছে আমার একটি প্রশ্ন;

তোমাদের ক্ষমতাকে পোক্ত করতে আর

কত মানুষের জীবন ও রক্তের প্রয়োজন,

এতই পিচাশ তোমরা বুকের রক্ত

মাতৃ চোখের অশ্রু, স্ত্রী আর সন্তানের আহাজারী

এসবের কোন মূল্য নেই তোমাদের কাছে।

কেউ অগ্নি দগ্ধ হয়ে প্রাণ দিল

কেউবা পিষ্ট হয়ে কোউবা বোমা ফেটে

নির্বিচারে রাস্তায় জীবন দিল।

এসব ভয়াবহ অবস্থা ওদের বিবেককে

মোটেই নাড়া দেয় না

শান্তির নামে ওদের ভাষায় গণতন্ত্রের নামে

স্ব শাসনের নামে আর কত মানুষের জীবন হরণ করবে?

আমার দেশ আমার মা; জন্ম দিয়ে লালন পালন করে

বড় করে তুললো কি আমার রক্তের স্বাদ চাটতে?

আমি এমন জন্ম চাইনি,

আজকে কেন আমাকে জীবন বাঁচাবার জন্য চিৎকার করতে হবে।

কেন খোদার কাছে দু’ হাত তুলে জীবন ভিক্ষা চাইতে হবে?

কেন এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি কর তোমরা?

যাতে খোদার কাছে দু’ হাত তুলে তোমার দুস্কর্ম থেকে বাঁচার জন্য

সাহায্য চাইতে হয়।

তাই এমন শাসন এমন সমাজপতী আমি চাই না

যাদের কাছে মানুষের জীবনের মোটেই মূল্য নেই।

যেখানে বিপন্ন মানবতা, সেই সময়, সেই সমাজ

কোন মানবের কাম্য হতে পারে না।