পৃথিবীর বুকে ভেঙে পড়বে ‘স্বর্গীয় প্রসাদ’

ফুলকি ডেস্ক : চীনা স্যাটেলাইট তিয়ানগং-১ আজ রোববার পৃথিবীর বুকে ভেঙে পড়বে। ৪০ ফুট লম্বা স্যাটেলাইটটি যে কোনো সময় ভেঙ্গে পড়বে বলে জানান ইউরোপীয়ান স্পেস এজেন্সি। স্যাটেলাইটটি ‘স্বর্গীয় প্রসাদ’ নামে পরিচিত। চীনের ম্যান্ড স্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং অফিস জানায়, এপ্রিল মাসের ১ তারিখ রাত ও ২ তারিখ সকালের মাঝামাঝি যে কোনো সময় পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে পুনরায় প্রবেশ করবে এই স্যাটেলাইটটি। তবে কোথায় এটি ভেঙে পড়বে সে সম্পর্কে নির্দিষ্টভাবে এখনও জানাতে পারেনি বিজ্ঞানীরা। এদিকে চীনা বিজ্ঞানীরা ৯ দশমিক ৪ টনের টক্সিন গ্যাসে ভর্তি স্যাটেলাইট বায়ুমণ্ডলে পুনরায় প্রবেশের বিষয়ে আশঙ্কামুক্ত থাকার জন্য নাগরিকদের আহ্বান জানিয়েছে। তারা বলেন, সিনেমার মতো এটি পৃথিবীতে ক্রমশ ক্র্যাশ করবে না। তবে উল্কির একটি ঝরণার মতো দেখা যাবে। গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত স্পেস ল্যাবটি ১৯৬ দশমিক ৪ কিলোমিটার (১২২ মাইল) এর উচ্চতায় পৃথিবীর কক্ষপথে আবর্তন করে। ২০১১ সালে চীন থেকে উৎক্ষেপণ করা হয় এই স্যাটেলাইট স্টেশনটি। চীনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বেশ কয়েকটি মহাকাশ গবেষণা অভিযানে অংশ নিয়েছে এটি। তবে দেশটির মহাকাশ গবেষণা সংস্থা সিএনএসএ ২০১৬ সালে জানায়, তিয়াংগং ১-এর নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে তারা। নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে সেটি অস্বাভাবিক আচরণ করছে। তবে কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা স্পষ্ট করেনি চীনা সরকার। যদিও চীনের স্পেস প্রোগ্রামের জন্য এই ঘটনাটি বেশ বিব্রতকর। তবে এ ঘটনায় তাদের স্পেস যাত্রার অগ্রগতিতে কোনও প্রকার বিলম্ব হয়নি। প্রসঙ্গত, ৩০ মার্চ থেকে ৬ এপ্রিলের মধ্যে স্যাটেলাইটটি ভেঙে পড়বে বলে সতর্ক করেছিলেন বিজ্ঞানীরা। গত সেপ্টেম্বর ২০১৬ সালে তিয়ানগং-২ স্পেস ল্যাব নামে আরও একটি স্যাটেলাইট চীন সফলভাবে চালু করে এবং কক্ষপথে প্রবেশ করায়।