সিংগাইরে জুয়ারীদের ধরে ছেড়ে দিলেন পুলিশ

সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : সিংগাইর থানার ধল্লা-ফোর্ডনগর বক্সের ইনচার্জ এসআই জাকারিয়ার বিরুদ্ধে জুয়ারীদের ধরে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিনিময়ে হাতিয়ে নেয়া হয়েছে মোটা অংকের টাকা।
জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর উপজেলার ধল্লা ইউনিয়নের ফোর্ডনগর বেঙ্গল কার্পেট মিল সংলগ্ন এলাকা থেকে রিপন খান (৩০), মহিদুর রহমান (৩৫), ফরহাদ (৩৩), খালেক (৪৫) ও জসিমকে (৪২) জুয়ার আসর থেকে আটক করেন পুলিশ। ওই আসরের জুয়ার সমস্ত টাকা হাতিয়ে নেন পুলিশ। পরে আটককৃতদের পুলিশ বক্সে আটকিয়ে রাখেন। স্থানীয় জনৈক জনপ্রতিনিধির মধ্যস্তায় ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে পুলিশ বক্সের ইনচার্জ রিপনকে ছেড়ে দেন। বাকীরা পুলিশের দাবী অনুযায়ী টাকা না দেয়ায় থানায় হস্তান্তর করেন। এ ব্যাপারে এসআই জাকারিয়ারকে মুঠো ফোনে একাধিক কল করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি।
এদিকে অপর একটি সূত্র জানিয়েছে, গত রবিরার দিবাগত রাতে জুয়া খেলার অভিযোগে উপজেলার মেদুলিয়া গ্রামের মুসলেমের বাড়ি থেকে গৃহকর্তাসহ ৩ জনকে আটক করে মোটা অংকের টাকা দাবী করে এসআই জাকারিয়া। পরদিন ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেনের নির্দেশে মোবাইল কোর্টে জরিমানা করা হয়। দারোগা জাকারিয়া আটককৃতদের কাছ থেকে টাকা না পেয়ে মোবাইল কোটে নেয়ার আগে মারধর করে এবং মোবাইলে ছবি তুলে রাখেন। পরবর্তীতে তাদেরকে ইয়াবা মামলায় ফাঁসানো হবে বলে হুমকি দেন। ভুক্তভোগীরা বলেন, স্থানীয় এক সাংবাদিকের মাধ্যমে বিষয়টি ওসি সাহেবকে জানানো হয়েছে।