মানিকগঞ্জে পরকীয়া প্রেমে স্বামীর ঘর ছেড়ে বিপাকে গৃহবধূ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার দিঘুলিয়া গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে আ. রহমানের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে স্বামীর সংসার ত্যাগ করেন গার্মেন্টসকর্মী রাশেদা বেগম। তিন মাস আগে ধামরাই উপজেলা কাজি অফিসে কাবিন মূলে বিয়ে হয় তাদের।  এদিকে, অন্য মেয়েকে বিয়ের খবর জানতে পেরে স্বামী রহমানের বাড়িতে গিয়ে অনশন শুরু করেন রাশেদা। এ সময় স্বামী রহমান তাকে তাড়াতে স্থানীয় কালু দেওয়ানের ছেলে ছাইদুল ও সন্ত্রাসী বাবুলকে সঙ্গে নিয়ে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এ সময় তারা ছিনিয়ে নেয় রাশেদার স্বর্ণের গহনা, মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা।   সোমবার বিকেলে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় স্ত্রীর অধিকার পেতে স্বামীর বাড়িতে অনশন শুরু করেন রাশেদা বেগম। কিন্তু তাকে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায় স্বামী স্বামী আ. রহমান ও তার ভাড়াটে বাহিনী।  গুরুতর অবস্থায় রাশেদাকে সাটুরিয়া উপজেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ ঘটনায় আ. রহমানকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার মানিকগঞ্জ আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।  বিষয়টি নিশ্চিত করে সাটুরিয়া থানা পুলিশের এসআই মো. মনোয়ার হোসেন বলেন, ঘটনার সত্যতা পওয়া গেছে। থানায় মামলা হয়েছে। আ. রহমানকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান এসআই।