সিংগাইরে ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিকে মারধর

সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : উপজেলা সদর বাজারে প্রকাশ্যে একমি ল্যাবরেটরীজ কোম্পানীর প্রতিনিধি অনন্ত কুমার বর্মনকে (৩৫) মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার জের ধরে অভিযুক্ত মাধবী মেডিক্যাল হলের সাথে সমস্ত ব্যবসায়িক লেনদেন বন্ধ করে দিয়েছেন সিংগাইর উপজেলা ফার্মাসিউটিক্যালস রিপ্রেজেন্টেটিভ অ্যাসোসিয়েশন ( ফারিয়া)। সংগঠনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওই দোকানে ওষুধ  সরবরাহসহ সমস্ত লেনদেন বন্ধ করে দেয়া হয়।

এদিকে, গত বৃহস্পতিবার স্কয়ার ফার্মার এমপিও মাহমদুল্লাহকে নতুন করে মোবাইল ফোনে প্রাণনাশসহ সিংগাইর ছাড়া করার হুমকি দেন ওই ফার্মেসী মালিক আশিষ সরকার। এ ঘটনায় ওই রাতেই সংগঠনটির সভাপতি ও মেডিকন ফার্মাসিউটিক্যালসের সিনিয়র এমপিও মোঃ সোহরাব হোসেন বাদি হয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন । যার নং- ৯৪৫।

জানা গেছে, গত ১৫ মার্চ সন্ধ্যায় সিংগাইর টেরিটরিতে কর্মরত একমি ল্যাবরেটরীজ-এর এমপিও অনন্ত কুমার বর্মন ওষুধ বাকি না দেয়ায় ফার্সেমী মালিক আশিষ সরকার (৩৭) ও তার ভাই  নবকুমার দিপু (২৮) মিলে তাকে প্রকাশ্যে মারধর করে। পরদিন ওই এমপি বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। রাতেই সিংগাইর ফারিয়ার এক জরুরী সভায় মাধবী মেডিক্যাল হলের সাথে সমস্ত ওষুধ কোম্পানীর ব্যবসায়িক লেনদেন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়। এতে সকল কোম্পানীর  প্রতিনিধিরা ওই ফার্মেসীতে ওষুধ সরবরাহ বন্ধ করে দেন। এ ঘটনার জের ধরে গত বৃম্পতিবার দুপুরে পুনরায় স্কয়ার ফার্মার এমপিওকে টেলিফোনে হত্যাসহ সিংগাইর ছাড়া করার হুমকি দেয়। এ দিকে মাধবী মেডিক্যাল হল এর মালিকদ্বয়ের ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের ওপর হামলা, হত্যা ও হুমকির ঘটনায় সিংগাইরে কর্মরত অন্যান্য কোম্পানীর প্রতিনিধিরা আতংক রয়েছেন।