সাভারে মেয়েকে দ্বিতীয় বিয়ে দিতে শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার : সাভারে মেয়ের দাম্পত্য কলহে অতিষ্ঠ হয়ে তাকে দ্বিতীয় বিয়ে দেয়ার জন্য তার ২ বছরের শিশু সন্তানকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেছেন শিশুর নানা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা রাতে শিশুটির মা বাবলী আখতারকে আটক করছে সাভার মডেল থানা পুলিশ। এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে সাভারের ছায়াবিথী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর থেকে ঘাতক নানা বাবুল ভান্ডারি পলাতক।

জানা যায়, নিহত শিশুটির নাম মো. সোয়াত। বাবলীর সঙ্গে তার স্বামী আবদুল মোমিনের বনিবনা হচ্ছিল না। তাদের সংসারে অভাব-অনটন লেগেই থাকতো।

এ জন্য তাদের দাম্পত্য কলহ চলছিল। বাবুল ভান্ডারীর দ্বিতীয় স্ত্রী এ কথা জানিয়েছেন। তিনি আরও জানান, নাতি সোয়াতকে নিজের কাছে রেখে লালন পালন করছিলেন নানা বাবুল ভান্ডারি। সম্প্রতি মেয়ে বাবলীকে অন্যত্র বিয়ে দেয়ার চিন্তা করেন তিনি।

বিয়ে ঠিকও হয়েছিলো ব্যাংক কলোনীর একটি ছেলের সঙ্গে। এজন্য মেয়ের যোগসাজসে শিশু সোয়াতকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেন। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বাবলী আখতারের মাকে প্রায় ৩ বছর আগে তালাক দিয়েছে বাবুল ভান্ডারী।