সাভারে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে অভিনব কায়দায় বিআরটিসি বাসের টাকা ছিনতাই

ধামরাই প্রতিনিধি : ঢাকার গুলিস্তান থেকে বিআরটিসি’র একটি বাস (ঢাকা মেট্রো-ব-১১-২১৫০) পাটুরিয়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে বুধবার বিকেল তিনটায়। বাসটিতে বিভিন্ন স্ট্যান্ডে যাত্রী উঠানামা করে। এরই ধারাবাহিকতায় প্রায় পৌনে পাঁচটার দিকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয় (ডেইরী ফার্ম) গেট থেকে দু’জন ছাত্রী এবং এক যুবক (২৪) উঠে এই বাসে। বাসটি যখন বিশমাইল বাসস্ট্যান্ড অতিক্রম করে প্রায় তিনশত গজ সামনে চলে আসে এমন সময় বাসের গেটে থাকা ওই যুবক (যিনি জাহাঙ্গীরনগর গেট থেকে উঠেছে) আকস্মিকভাবে কন্ডাক্টর কাম হেলপারের গালে দুই-তিনটি চপেটাঘাত করে বলতে থাকে ‘তুই কেন বললি কোথায় যাবেন’। এক পর্যায়ে চালককেও দুটি চর থাপ্পর মেরে গালি দিয়ে বলতে থাকে গাড়ী সাইট কর ‘তোরা অন্যায় করছত’। ্টে ঘটনায় হতবম্ব হয়ে যায় হেলপার ও চালক। পাশাপাশি যাত্রীরাও আকস্মিক ঘটনায় কোন কিছু বুঝে উঠতে পারেনি। এসময় গাড়িটি শম্ভুক গতিতে চলছিল। কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই বিপরীতদিক থেকে আসা (গকুলনগরমুখি সড়ক সম্মুখে ঘটনা) একটি মোটরসাইকেলে দু’জন আরোহী (মধ্যবয়সী এবং মাথার চুল খাটো দেখতে কোন ডিফেন্সের লোক হবে এমনইভাব) মোটরসাইকেল থামিয়ে মোটর সাইকেলে বসেই তারাও বলতে থাকে গাড়ী সাইট কর। এক পর্যায়ে হেলপার ও চালককে তারা নামিয়ে নিয়ে যান বাসের পিছন দিকে। এসময় একজন যাত্রী বাস থেকে নামলে তাকে ধমকের স্বরে বাসে উঠতে বলেন তারা। পরে তারা ওই হেলপার ও চালকের অন্যায় হয়েছে বলে জানায়। এজন্য সাথে যা আছে তাড়াতাড়ি দিয়ে যা। না দিলে এখনই ধোলাই হবে। গাড়ী নিয়ে যাওয়া হবে থানায়। এ কথা শুনে হতচকিত হয়ে যাওয়া কন্ডাক্টর কাম হেলপার ও চালকের কাছে থাকা ৮শ’ টাকা নিয়ে তারা দ্রুত সটকে পড়ে। মাত্র এক মিনিটের এমন অভিনব কায়দায় টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা প্রত্যক্ষ করছিল গাড়ীটিতে থাকা প্রায় ৩৫-৪০ জন যাত্রী। এরমধ্যে এ প্রতিবেদকও গুলিস্তান থেকে ধামরাইয়ে আসছিল ওই বাসে।
বাসের কন্ডাক্টর কাম  হেলপার লাভলু ও চালক আনোয়ার জানায়,তারা ভেবেছিল জাহাঙ্গীরনগর থেকে যে ছাত্রী উঠেছে তাদের উঠানোর সময় কি কোন ভুল হয়েছে কিনা যার কারনে তাদের চরথাপড় মেরেছে।