বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জনে জাফর বেপারী উচ্চ বিদ্যালয়ের আনন্দ র‌্যালি

আশুলিয়া ব্যুরো : বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জন করায় এই ঐতিহাসিক সাফল্যে আনন্দ র‌্যালী করেছে আশুলিয়ার ঘোড়াপীর মাজার সংলগ্ন আলহাজ্ব জাফার বেপারী উচ্চবিদ্যলয়।  বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় বিদ্যলয়ের মাঠ থেকে র‌্যালিটি শুরু হয়। র‌্যালিটি বাইশমাইল-গণ বিশ্ববিদ্যালয় সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় বিদ্যালয়ে এসে শেষ হয়।
র‌্যালিতে আলহাজ্ব জাফর বেপারী উচ্চবিদ্যলয়ের ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি মোঃ ফিরোজ কবির,দাতা সদস্য বৃন্দ, প্রধান শিক্ষক ফারুক আহম্মেদ,সহকারী শিক্ষক শিক্ষিকা বৃন্দ সহ ১০০০ শিক্ষার্থী বাংলাদেশের উন্নয়ন ও সাফল্যের তথ্যাবলী সম্বলিত ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করে। আনন্দ র‌্যালি শেষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়,
এ সময় স্কুল ম্যানেজিং  কমিটির সভাপতি মোঃ ফিরোজ কবীর শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ২০০৮ সালের নির্বাচনের পর থেকে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। এ জন্য মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল (এমডিজি) আমরা অর্জন করতে পেরেছি নির্ধারিত সময়ের আগেই। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিত হয়েছে। বাংলাদেশ স্বল্পন্নত দেশের স্ট্যাটাস হতে উত্তরণের ঐতিহাসিক যোগ্যতা অর্জন করেছে।
প্রধান শিক্ষক ফারুক আহম্মেদ বলেন, আজ আমরা দরিদ্র নয়, প্রতিযোগী দেশের মর্যাদায় আসীন। সারা বিশ্বে নতুন করে নাম ঘোষিত হল উন্নয়নশীল বাংলাদেশের নাম। ফলে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে বাংলাদেশ, পাবে যথার্থ মর্যাদা। মিলবে ব্যাপক বৈদেশিক বিনিয়োগ। আচিরেই পৌঁছাবে উন্নত শিখরে, উন্নত দেশে।’
উল্লেখ্য, জাতিসংঘের উন্নয়ন নীতি সংক্রান্ত কমিটি (সিডিপি) গত শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ (এলডিসি) থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণে যোগত্যা অর্জনের ঘোষণা দেয়। এ দিন নিউইয়র্কে সিডিপির ঘোষণা সংক্রান্ত একটি চিঠি জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেনের কাছে হস্তান্তর করা হয়।