সিংগাইরে জায়গীর সেতুর মাঝখানে গর্ত হয়ে যান চলাচল বন্ধ

 

মাসুম বাদশাহ, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) থেকে : সিংগাইর উপজেলার ধল্লা ইউনিয়নের জায়গীর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন আঠালিয়া-জায়গার সংযোগ সেতুর মাঝখানে ২টি গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়েছে। এতে জনদুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করছে। ইতিপূর্বে এ জরাজীর্ণ সেতুটির ৬টি স্থানে গর্ত বন্ধ করে দিলেও এবার নতুন করে মাঝখানে ২টি গর্ত হওয়ায় বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশংকা করছেন এলাকাবাসি।

সূত্র মতে, উপজেলার বিভিন্ন শাখা সড়কের ৬ টি জরাজীর্ণ সেতু নিয়ে গত ১০ মার্চ “সিংগাইরে ৬টি সেতুর জরাজীর্ণ, অনেকগুলো বেহাল।” শিরোনামে দৈনিক ফুলকি এবং দৈনিক ফুলকির অনলাইনসহ কয়েকটি দৈনিকে স্বচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হয়। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে তোলপাড় শুরু হয়। সরকার দলের জনপ্রতিনিধিরা প্রকাশিত সংবাদটি নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখেন। অপরদিকে ভুক্তভোগীসহ সাধারণ মানুষ সংবাদটির পক্ষ নিয়ে সাধুবাদ জানান। এদিকে উপজেলার চান্দহর ইউনিয়নের মানিকনগর কানুখালি ও বেল্লকপাড়া ক্ষতিগ্রস্ত ২টি সেতু সংস্কার কাজ সম্পন্ন হয়েছে বলে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত হোসেন বাদল জানিয়েছেন। সেই সাথে এ দু‘সেতুসহ হাতনী-জামির্ত্তা চকের আরো ২টি জরাজীর্ণ সেতুর পুনঃনির্মাণের কাজ প্রক্রিয়াধীন বলে ওই চেয়ারম্যান দাবি করেন।

অপরদিকে ধল্লা ইউনিয়নের আঠালিয়া-জায়গীর সংযোগস্থল সেতুটির মাঝখানে ঢালাই ভেঙ্গে ২টি গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সেতুটিতে গত কয়েকদিন ধরে যান চলাচল সম্পূর্ণভাবে বন্ধ রয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা গেছে, সেতুর উপর যানবাহন আটকা পড়ে আছে। জায়গীর গ্রামের রফিজ উদ্দিন মোল্লাহর পুত্র কায়কোবাদ (২৭) অভিযোগ বলেন, ইতিপূর্বে এ সেতুতে ৬টি গর্তের সৃষ্টি হলে তা বন্ধ করে দেয়া হয়। এখন নতুন ২টি গর্তে হওয়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তিনি আরো বলেন, সেতুর যান চলাচল বন্ধ থাকায় গাজর ব্যবসায়ি জনৈক আমির হোসেনের ৫০ বিঘা গাজর বিক্রি করতে পারছেন না। জায়গীর বাজারের আশা ডিজিটাল স্টুডিও‘র মালিক মোঃ মাহফুজুর রহমান (২৫) বলেন, গত ২দিন আগে সেতু পার হতে গিয়ে দু‘স্কুল ছাত্র পা পিছলে ভাঙ্গাস্থলে আটকে পড়ে। স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জায়গীর গ্রামের বাসিন্দা মোঃ আব্দুস ছালাম মোল্লাহ সেতুটি পুনঃনির্মাণের জোর দাবী জানান।

এ ব্যাপারে সিংগাইর উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বৃহস্পতিবার মোবাইল ফোনে জানান, সেতুর গর্ত ২টি আমি দেখেছি। স্থানীয় চেয়ারম্যানকে বলে গর্ত বন্ধ করে যান চলাচলের ব্যবস্থা করব।