সাভারে বাবা পাগলনাথকে মারধরের অভিযোগে ছেলে প্রশান্ত আটক

স্টাফ রিপোর্টার : সাভারে পাগলনাথ ইলেকট্রিক্সের মালিক হরিপদ সাহা ওরফে পাগলনাথকে মারধরের অভিযোগে ছেলে প্রশান্ত সাহাকে আটক করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকালে সাভার বাজার বাসসট্যান্ডে বাজার রোডের পাগলনাথ ইলেকট্রিক্স দোকান থেকে আটক করা হয় প্রশান্তকে।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন যাবত পাগলনাথ ইলেকট্রিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নিয়ে বাবা হরিপদ সাহার সাথে ছেলে প্রশান্ত সাহার বিরোধ চলে আসছিল। এক পর্যায়ে হরিপদ সাহার ছেলে প্রশান্ত সাহা পাগলনাথ ইলেকট্রিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটির মালিক দাবি করে বাবা হরিপদ সাহা ওরফে পাগলনাথকে প্রতিষ্ঠানটিতে প্রবেশ করতে দিতো না। এসময় মালিকানা নিয়ে বাবা ছেলের মধ্যে বাকবিতান্ড শুরু হলে প্রশান্ত তার বাবাকে মারধর করে। এঘটনায় হরিপদ সাহা ওরফে পাগলনাথ সাভার মডেল থানায় ছেলের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করলে মডেল থানার পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার বিকালে পাগলনাথ ইলেকট্রিক দোকান থেকে প্রশান্তকে আটক করে নিয়ে যায়। থানা থেকে প্রশান্তকে ছাড়িয়ে নিতে একটি প্রভাবশালীমহল চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে জানায় পাগলনাথ।

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার এস আই সেলিম রেজা দৈনিক ফুলকিকে বলেন, ব্যবসায় নিয়ে বাবা ছেলের মধ্যে পারিবারিক দ্বন্দ্ব চলছে। বাবা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তিতে ছেলে প্রশান্তকে আটক করা হয়েছে। তবে পারিবারিক বিষয় বলে মিমাংসা করে দেওয়ার কথাও বলেন তিনি।

কিন্তু পাগলনাথের দাবি মার্কেটের জমি, ভবন এবং ব্যবসা তার নামে। ব্যবসার দায়িত্ব ছেলেকে বুঝিয়ে দেয়ার লক্ষ্যে দোকানে বসালে সে এক পর্যায়ে নিজেই মালিক ভেবে বাবাকে অবজ্ঞা এবং লাঞ্ছিত করতে শুরু করে। যা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।