দুই বছরের প্রচেষ্টায় নিউ জার্সিতে প্রথম মসজিদ নির্মাণের অনুমোদন

ফুলকি ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির বয়োনে শহরে প্রথম একটি মসজিদ নির্মাণের জন্য অবশেষে অনুমোদন দিয়েছেন শহরের কর্তৃপক্ষ।  বয়োনে শহরের একটি পরিত্যক্ত গুদামকে মসজিদ ও ইসলামি কমিউনিটি সেন্টারে রূপান্তর করার প্রচেষ্টা দুই বছর আগে শুরু হয়। শুরুতে রাজ্যের স্থানীয় সরকার থেকে এই প্রচেষ্টাকে প্রত্যাখ্যান করা হয়।  এরপর মুসলমানদের একটি গ্রুপ এর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে দুই বছরের প্রচেষ্টার পর সোমবার এই অনুমোদন দেয়া হয়।   মামলার বিবরণ অনুযায়ী, মসজিদটি নির্মাণ প্রচেষ্টার পরিপ্রেক্ষিতে মুসলিম ধর্মের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালানো হয় এবং তারপর এটি নির্মাণের পক্ষে-বিপক্ষে মত গ্রহণের জন্য অন্যায়ভাবে শহরের জোনেটিং বোর্ড কর্তৃক ভোটে দেয়া হয়।  মুসলিম গ্রুপের আইনজীবী আদেল মঞ্জি ‘দ্য জার্সি জার্নাল’কে বলেন, ‘জোনিং বোর্ডের পক্ষ থেকে সর্বসম্মত অনুমোদন পাওয়ায় আমরা আনন্দিত এবং শহরের প্রথম মসজিদের পক্ষ থেকে বয়োনের সকল ধর্মের বাসিন্দাদের স্বাগত জানানোর জন্য উন্মুখ হয়েছি।’  মসজিদটি নির্মাণ প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে বিভিন্নভাবে বাধা দেয়া হয়। এর মধ্যে রয়েছে ১১ সেপ্টেম্বরের হামলার ঘটনা উল্লেখ করে প্রচারপত্র বিলি করা, মুসলিম মালিকানাধীন ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান বয়কটের জন্য আহ্বান জানানো এবং গির্জার দেওয়ালে মুসলমান বিরোধী পোস্টার সাঁটানো হয়।  এসব প্রচারপত্রে বলা হয়েছিল, ‘সেভ বয়োনে বা বয়োনেকে রক্ষা করুন’ এবং ‘মসজিদ নির্মাণ বন্ধ করো’ ইত্যাদি। শহরের চারপাশে এসব প্রচারপত্র বিলি করা হয়েছিল।  আইনজীবী আদেল মঞ্জি জানান, জোনিং বোর্ডের শুনানিতে একজন ব্যক্তি যুক্তি দেন যে মসজিদটির অনুমোদন প্রত্যাখ্যান করা উচিত কারণ এতে মানুষ ‘র‌্যাডিকালাইজড’ হবে এবং অন্যদের হত্যা করবে।  সোমবার মসজিদ নির্মাণের জন্য সর্বসম্মতি অনুমোদনের আগে বিরোধীরা পুনরায় তা প্রত্যাখ্যানের জন্য আহ্বান জানায়।  সূত্র: আল জাজিরা