কোটা সংস্কার : আন্দোলনকারী অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী আটক

স্টাফ রিপোর্টার : বিভিন্ন সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। পরে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারগ্যাস শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। ঘটনাস্থল থেকে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ।  বুধবার হাইকোর্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। দুপুরে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন ছিল।  রমনা জোনের উপকমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘হাইকোর্টের মতো গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় অবস্থান নেয় আন্দোলনকারীরা। বার বার  রাস্তার একপাশে অবস্থান নিতে বলা হলেও  তারা সরেনি। এ কারণে টিয়ারগ্যাস শেল ছুঁড়তে হয়েছে। আর যাদের আটক করা হয়েছে তাদের বিষয়ে যাচাই-বাছাই শুরু হয়েছে।’  বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে থেকে হাজারের বেশি চাকরিপ্রত্যাশী মিছিল শুরু করেন। মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা, দোয়েল চত্বর হয়ে হাইকোর্ট এলাকায় আসলে পুলিশ আটকে দেয়। শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করতে থাকেন। পরে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারগ্যাস শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ সময় ৫০ থেকে ৬০ জনকে আটক করা হয়েছে বলে আন্দোলনকারীরা অভিযোগ করেন।  আন্দোলনকারী বলেন, ‘বিসিএসসহ সরকারের বিভিন্ন সংস্থায় নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা সংরক্ষণ করা হয়। এ কারণে অনেক মেধাবী সরকারি চাকরি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।’