৩০০ আসনে প্রার্থী দেবে হেফাজতে ইসলামের নতুন জোট

একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফীর দলে নতুন রাজনৈতিক জোট করতে যাচ্ছে। আত্মপ্রকাশের অপেক্ষায় থাকায় এ জোটের প্রাথমিক নাম নির্ধারণ করা হয়েছে ইসলামী ডেমোক্রেট জোট| নতুন এ জোটের নেতৃত্বে রয়েছেন দেশের বহুল আলোচিত অরাজনৈতিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামের প্রভাবশালী কয়েকজন নেতা। ইতোমধ্যে ৩০০ আসনে নির্বাচন করার লক্ষ্য নিয়ে মাঠ পর্যায়ে কাজ শুরু করেছে নতুন এ জোটের শরিকরা।  এ বিষয়ে ইসলাম ও ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মাঈনুদ্দীন রুহী বলেন, নীতি অনুযায়ী এ জোটকে প্রকাশ্যে সমর্থন দেবে না হেফাজতে ইসলাম। অরাজনৈতিক সংগঠন হিসেবে পরিচিত পাওয়া হেফাজতে ইসলাম নির্বাচনে কৌশলে জোটের প্রার্থীদের হয়ে কাজ করবে। এ জোটের শরিকরা যে যে আসনে প্রার্থী দেবে, সেই আসনের প্রার্থীদের হয়ে কাজ করছেন হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা।  নতুন এ জোটের কয়েকজন নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কওমি মতাদর্শী রাজনৈতিক দলগুলোর একটি জোট গঠন করতে ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহে ঢাকার পল্টনের একটি হোটেলে বৈঠকে বসে। ওই বৈঠকে দ্রুত সময়ের মধ্যে ইসলামী ডেমোক্রেট জোট ঘোষণার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ জোটের নেতৃত্বে রয়েছে ইসলামী ঐক্যজোটের একাংশ।  এ ছাড়া জোটে সম্ভাব্য শরিক হিসেবে থাকার প্রাথমিক সম্মতি দিয়েছে খেলাফত আন্দোলন, খেলাফত মজলিশ, ইসলামী শাসনতন্ত্র (একাংশ), ফরাজেয়ী আন্দোলন, নেজামে ইসলাম, জমিয়তে ইসলাম এবং ওলামা কমিটি।  জানা যায়, ইসলামী ঐক্যজোটের নেতৃত্বে রয়েছেন আবদুল লতিফ নেজামী ও মুফতি মোহাম্মদ ফয়জুল্লাহ। তারা দুজনই হেফাজতে ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ পদে আছেন। খেলাফত আন্দোলনের আমির আতাউল্লাহ হাফেজ্জী ঢাকা মহানগর হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমির, খেলাফত মজলিশের সভাপতি হাবিবুর রহমান সিলেট হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমির, নেজামে ইসলাম সেক্রেটারি শেখ লোকমান হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করছেন। জমিয়তে ইসলামের আমির মুফতি ওয়াক্কাস হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমিরের দায়িত্বে। ওলামা কমিটি সেক্রেটারি মুফতি মোহাম্মদ তৈয়ব ঢাকা হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমিরের দায়িত্ব পালন করছেন।  ইসলামী ঐক্যজোটের একাংশের মহাসচিব ও হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মুফতি মোহাম্মদ ফয়জুল্লাহ বলেন, ইসলামী দলগুলো নিয়ে একটি জোট করার দীর্ঘদিনের পরিকল্পনা ছিল। এ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে একটি ইসলামী জোট শিগগিরই আত্মপ্রকাশ করবে। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার টার্গেট রয়েছে এ জোটের।  এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আদর্শিকভাবে হেফাজতে ইসলামের সঙ্গে এ জোটের সম্পর্ক থাকলেও রাজনৈতিকভাবে কোনো সম্পর্ক নেই। হেফাজতে ইসলাম ও এ রাজনৈতিক দলের অবস্থান ভিন্ন ভিন্ন প্লাটফর্মে। তাই এই দুটোকে এক করার সুযোগ নেই।