সাভারে বৃদ্ধ হত্যা, ছেলে স্ত্রীসহ পলাতক

স্টাফ রিপোর্টার : সাভারে এক বৃদ্ধকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। পুলিশ বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছে। তার নাম তাজুল ইসলাম (৭০)। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। এ বৃদ্ধের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এ ঘটনার পর থেকে বৃদ্ধের ছেলে ও তার স্ত্রী পলাতক রয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের পানপাড়ার নয়াপাড়া এলাকার বৃদ্ধ তাজুল ইসলামের লাশ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায় প্রতিবেশীরা। পরে সাভার মডেল থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। নিহত ওই বৃদ্ধর গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
প্রতিবেশী ইকবাল হোসেন ও মোহাম্মদ আলী বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ওই বৃদ্ধকে গলা টিপে হত্যা করেছে তার ছেলে ও পুত্রবধূ। পরে তারা লাশ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে। তারা উভয়েই ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে। তাদেরকে আটক করলেই এ হত্যার রহস্য উদঘাটন করা যাবে। নিহত ওই বৃদ্ধের দেলোয়ার ও আনোয়ার হোসেন নামের দুই ছেলে সন্তান রয়েছে। ছোট ছেলে বাড়িতে বসবাস করলেও বড় ছেলে সাভারের পশিচম ব্যাংকটাউন এলাকায় বসবাস করেন।
এবিষয়ে সাভার মডেল থানার এস আই আজগর আলী বলেন, নিহত বৃদ্ধের গলায় দাগ রয়েছে। ময়না তদন্তের পরে জানা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা। এঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।