প্রাথমিকে প্রধান শিক্ষক পদে ১৯৪ জনকে পদায়ন

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে (চলতি দায়িত্ব) আরও ১৯৪ জন সহকারী শিক্ষককে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। এ তালিকায় কিশোরগঞ্জের বিভিন্ন স্কুলে কর্মরত জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষকরা রয়েছেন। রোববার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ-সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হয়।  আদেশে বলা হয়েছে, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন কিশোরগঞ্জ জেলার জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষককে চলতি দায়িত্বে প্রধান শিক্ষক শূন্যপদে বসানো হয়েছে। পদোন্নতিপ্রাপ্ত শিক্ষকদের আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।   এ বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. এ এফ এম মনজুর কাদির  বলেন, জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে কিশোরগঞ্জের তালিকভুক্ত শিক্ষকদের চলতি দায়িত্বে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। রোববার এ সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করা হয়। এ জেলার চলতি দায়িত্বপ্রাপ্ত মোট ১৯৪ জন জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষক রয়েছেন।  তিনি বলেন, জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষকদের পদোন্নতি দিয়ে প্রধান শিক্ষকের শূন্যপদে পদায়ন একটি চলমান প্রক্রিয়া। ইতোমধ্যে ফরিদপুর, ভোলা, মেহেরপুর, কুষ্টিয়া, নেত্রকোনা, মেহেরপুর, ঠাকুরগাঁও ও ঢাকা জেলার জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষকদের পদোন্নতি দিয়ে প্রধান শিক্ষক পদে পদায়ন করা হয়েছে। অন্যান্য জেলা থেকে শিক্ষকদের গ্রেডেশনের তালিকা পাওয়ার পর যাচাই-বাছাই শেষে প্রধান শিক্ষকের শূন্যপদে চলতি দায়িত্বে নিয়োগ দেয়া হবে।  জানা যায়, জ্যেষ্ঠ শিক্ষকদের তালিকা প্রণয়নে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরকে দায়িত্ব দেয়া হয়। সে তালিকার ভিত্তিতে মন্ত্রণালয় থেকে যোগ্য শিক্ষকদের পদায়নে অনুমোদন দিলে অধিদফতর সেই শিক্ষকদের প্রধান শিক্ষক পদে পদায়ন করে।  উল্লেখ্য, গত ২৩ মে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তফিজুর রহমান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের শূন্যপদে জ্যেষ্ঠ সহকারী শিক্ষকদের দায়িত্ব দেয়ার ঘোষণা দেন।