পোষা গণমাধ্যম চায় না সরকার : ইনু

বর্তমান সরকার পোষা গণমাধ্যম চায় না বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন, আমরা সরকারের গঠনমূলক সমালোচনায় মুখর গণমাধ্যম চাই। মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, পোষা গণমাধ্যম গণতন্ত্রের ভীতকে দুর্বল করে দেয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার পোষা গণমাধ্যম চায় না। আমরা গণতন্ত্রের বিকাশের পক্ষে আছি। তবে জঙ্গিবাদের পক্ষ নেওয়া হলুদ সাংবাদিকতাকেও আমরা সমর্থন করি না।

অচিরেই ‘গণমাধ্যম কর্মীদের চাকরি শর্তাবলী’ নামে একটি বিল আগামী জাতীয় সংসদ অধিবেশেনে পাঠানো হবে জানিয়ে হাসানুল হক ইনু বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের করা ‘সাংবাদিক-কর্মচারী অ্যাক্ট-১৯৭৪’ এর ধারাবাহিকতা রাখা হয়েছে। এতে টেলিভিশন, রেডিও ও অনলাইনে কাজ করা গণমাধ্যমকর্মী ও কর্মচারীদের অধিকার, চাকরির নিশ্চয়তা ও সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত হবে। হাসানুল হক ইনু বলেন, সাংবাদিকদের অনেকেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। আপনাদের উদ্বেগের বিষয়গুলো আমাকে লিখিত ও ব্যক্তিগতভাবে জানালে আমি তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলবো। এই আইনটি এখনও খসড়া পর্যায়ে আছে। সংশোধনের পর তা আরও কয়েক মাস পর সংসদে বিল আকারে যাবে। তাই চিন্তার কিছু নেই। তিনি বলেন, গণমাধ্যমের কর্মীদের স্বাধীনভাবে, আইনগতভাবে ও সাংবিধানিকভাবে মতামত, চাকরির নিরাপত্তা, কল্যাণ তহবিল, ওয়েজবোর্ড নিশ্চিত করছে বর্তমান সরকার। ১৪ ফেব্রুয়ারি সাংবাদিক দিবস হিসেবে পালন করার নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে বলেও তিনি জানান। ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিউজে) সভাপতি শাবান মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক প্রমুখ।