তরুণদের দক্ষ করতে শেখ হাসিনার নামে আইন পাস

দেশের তরুণদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে ‘শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট বিল-২০১৮’ জাতীয় সংসদে পাস হয়েছে।  রোববার বিলটি পাসের প্রস্তাব করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার। পরে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়। এর আগে বিলের ওপর দেয়া জনমত যাচাই- বাছাই কমিটিতে পাঠানো এবং সংশোধনী প্রস্তাবগুলোর নিষ্পত্তি হয়।  শেখ হাসিনা জাতীয় যুব কেন্দ্র পরিচালিত হচ্ছে ১৯৯৮ সাল থেকে। প্রাতিষ্ঠানিকীকরণের মাধ্যমে এ কেন্দ্রকে আইনের আওতায় আনতে বিলটি তোলা হয়।   বিলে বলা হয়েছে, ‘এ ইনস্টিটিউটের একটি নির্বাহী কাউন্সিল থাকবে, যার প্রধান হবেন যুব ও ক্রীড়া সচিব। ১৮ ক্যাটাগরির সদস্য এ নির্বাহী কাউন্সিলে সদস্য হিসেবে থাকবেন। নির্বাহী কাউন্সিলে মনোনীত সদস্যদের তিন বছরের জন্য মনোনয়ন দেয়া হবে। নির্বাহী কাউন্সিলকে বছরের কমপক্ষে দুইবার সভা করতে হবে।’  এতে আরও বলা হয়, ‘যুবদের মানবসম্পদে রূপান্তরে প্রশিক্ষণ ও কারিকুলাম প্রণয়ন করা, যুবকর্মের ওপর উচ্চতর গবেষণা ও মূল্যায়ন, ডিপ্লোমা ও ডিগ্রি দেয়া, যুবকদের বিষয় নিয়ে একটি তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলা, প্রশক্ষণ ও যুববিষয়ক নীতি প্রণয়ণ করবে এ ইনস্টিটিউট। ইনস্টিটিউট একাডেমিক ডিগ্রি, ডিপ্লোমা, সনদ বা উপাধি দিতে পারবে। সরকারের অনুমোদন নিয়ে ইউজিসির (বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন) সুপারিশ, পরামর্শ ও নির্ধারিত পদ্ধতি অনুযায়ী এসব ডিগ্রি দিতে হবে। বিভিন্ন ধরনের কোর্স পরিচালনার জন্য এ প্রতিষ্ঠানে একটি অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল থাকবে, যার প্রধান হবেন ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক।’  বিলটির উদ্দেশ্য ও কারণ সম্পর্কে প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেন, দেশের যুবসমাজের জন্য একটি আধুনিক ও মানসম্পন্ন গবেষণা, উচ্চশিক্ষা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার লক্ষ্যে আইন প্রণয়নের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। তাই ‘শেখ হাসিনা জাতীয় যুব কেন্দ্র’কে ‘শেখ হাসিনা যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট’এ রূপান্তর করার প্রয়োজনীয়তা অনুভূত হয়।