লিগানেসকে হারিয়ে প্রতিশোধ রিয়ালের

মাত্র এক মাস আগের কথা। কোপা দেল’রের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে রিয়াল মাদ্রিদকে বিদায় করে দিয়েছিলো লিগানেস। সেই প্রতিশোধটাই কি এবার নিলো জিনেদিন জিদানের দল? লা লিগায় ঘরের মাঠের লিগানেসকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে লস ব্লাঙ্কোসরা। সার্জিও রামোসের শেষ মুহূর্তের পেনাল্টিতে বড় জয় নিশ্চিত হয়েছে রিয়ালের। তবে ম্যাচের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ গোলটি করেছেন মিডফিল্ডার কাসিমিরো। তার গোলেই ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় জিদানের দল। লুকাস ভাসকেস করেন সমতাসূচক গোলটি। বুধবার রাতে বলতে গেলে দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন জিদান। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, লুকা মড্রিচ, টনি ক্রুস আর মার্সেলোর মতো বড় তারকার অনুপস্থিতিতে গ্যারেথ বেলকে শুরু থেকেই দায়িত্ব দেয়া হবে মনে করেছিলেন সবাই। কিন্তু সবাইকে চমকে দিয়ে বেলকে সাইড বেঞ্চে রেখেই একাদশ সাজান জিদান। দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে শুরুতেই বড়সড় ধাক্কাও খেয়ে বসে রিয়াল। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটে কর্ণার থেকে ভাগ্যের এক গোল পেয়ে যায় লিগানেস। উনাই বুসতিনসার টোকা রিয়াল গোলরক্ষক ঠেকিয়েই দিয়েছিলেন। তবে ফেরানোর পর চোখের ঝলকে বুসতিনসার গায়ে লেগে বল জড়িয়ে যায় জালে। REAL2 শুরুর এই ধাক্কা সামলে নিতে অবশ্য খুব বেশি সময় নেয়নি রিয়াল। পাঁচ মিনিটের মধ্যে (১১তম মিনিটে) মাতেও কোভাসিচের পাস থেকে দারুণ এক কোনাকুনি শটে দলকে সমতায় ফেরান লুকাস ভাসকেস। ২৯তম মিনিটে সংঘবদ্ধ একটি আক্রমণে এগিয়ে যায় রিয়াল। করিম বেনজেমা আর কাসেমিরো নিজেদের মধ্যে পাস দিতে দিতে ঢুকে পড়েন ডি-বক্সে। এর মধ্যে ভাসকেস হয়ে আবারও বল পান কাসেমিরো। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার সবাইকে বোকা বানিয়ে মুহূর্তেই বল ঢুকিয়ে দেন জালে। পরের সময়টায় বল নিজেদের কাছে রাখলেও লক্ষ্যভ্রষ্ট অনেক শট নিয়েছে রিয়াল। ৭৫ মিনিটে বেনজেমাকে উঠিয়ে গ্যারেথ বেলকে নামান জিদান। বদলি হিসেবে নেমে দারুণ একটি গোলের সুযোগও তৈরি করেছিলেন বেল। ম্যাচের ৮৮তম মিনিটে তার একক প্রচেষ্টায় নেয়া একটি শট একটুর জন্য বাঁচিয়ে দেন লিগানেস গোলরক্ষক। নির্ধারিত সময়ের একেবারে শেষ মিনিটে এসে কোভাসিচকে ফাউল করে বসে লিগানেস। লিগানেসের তিন চারজন ডিফেন্ডার বাধা দিতে গেলে ডি বক্সে পড়ে যান কোভাসিচ। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি সার্জিও রামোস। তাতেই ৩-১ গোলের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে জিদানের শিষ্যরা। এ নিয়ে শেষ চার ম্যাচে ১৬ গোল করলো রিয়াল। ভ্যালেন্সিয়াকে পেছনে ফেলে লা লিগার পয়েন্ট তালিকায় এখন তৃতীয় অবস্থানে তারা। শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার থেকে জিদানের দল পিছিয়ে আছে ১৪ পয়েন্টে।