বোলারের মাথায় বল লেগে ছক্কা

অতীতে পাওয়ার হিটিংয়ের সাক্ষী থেকেছে ক্রিকেটবিশ্ব! শহিদ আফ্রিদি, বিরেন্দর শেবাগ, ক্রিস গেইল কিংবা গ্লেন ম্যাক্সওয়েলদের ছক্কা মাঠ পেরিয়ে কখনও কখনও চলে গিয়েছিল মাঠের পাশের পার্কে; কিন্তু বুধবার ক্রিকেটের বাইশ গজ সাক্ষী থাকল আজব ব্যাটিংয়ের সৌজন্যে। আবার দেখা গেছে খেলতে গিয়ে ক্রিকেট মাঠে অনেকেই বলের আঘাতে আহত হয়েছেন। রমন লাম্বা, ফিল হিউজের মতো ক্রিকেটাররা মৃত্যুর কোলেও ঢলে পড়েছেন। তবে এবার ঘটেছে এক আজব ঘটনা। ব্যাটসম্যানের সরাসরি শট বোলারের মাথায় লেগে তা গেল বাউন্ডারির ওপারে। ছক্কা! আম্পায়ার প্রথমে বাউন্ডারি দিলেও পরে সিদ্ধান্ত বদল করে ছক্কার ঘোষণা দেন। এই ব্যাটসম্যান আবার ভারতীয় বংশোদ্ভূত নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলের ক্রিকেটার। বুধবার নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া টুর্নামেন্ট ফোর্ড ট্রফিতে অকল্যান্ড ও ক্যান্টারবেরি মধ্যে ৫০ ওভারের ম্যাচে পুকেকুরা পার্কে এই ঘটনা ঘটান জিত রাভাল। ঘটনাটি ঘটে অকল্যান্ড ইনিংসের ১৯তম ওভারে। ক্যান্টারবেরির মিডিয়াম পেসার অ্যান্ড্রু এলিসের বল স্টেপড-আউট করে মারেন রাভাল। বল সরাসরি বোলারের মাথায় লেগে তা লং-অন বাউন্ডারি টপকে যায়। ২৯ বছরের কিউই টেস্ট ব্যাটসম্যান এদিন ১৫৩ বলে ১৪৯ রানে ইনিংস খেলেন। তার ব্যাটিংয়ে ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩০৪ রান তোলে অকল্যান্ড। ইনিংসে চারটি ছক্কা ও ১০টি বাউন্ডারি মারেন রাভাল। ম্যাচ শেষে নিউজিল্যান্ডের হয়ে ৯টি টেস্ট খেলা এই ব্যাটসম্যান জানান, ‘যখন বল কারোর মাথায় লাগে, তখন তাকে নিয়েই চিন্তা হয় বেশি। আমিও অ্যান্ড্রুর চোট নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছিলাম; কিন্তু ভাগ্যবশত ওর বিশেষ কিছু হয়নি।’ ম্যাচটাও জিতে নেয় রাভালের দল। রান তাড়া করতে নেমে ১৯৭ রানে অল-আউট হয়ে যায় ক্যান্টারবেরি।