প্রশ্নফাঁস : শিক্ষকসহ পাঁচজন কারাগারে

: প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় রাজধানীর উত্তরখানের ক্যামব্রিজ হাই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকসহ পাঁচজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম মো. আহসান হাবীবের আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। কারাগারে যাওয়া আসামিরা হলেন- উত্তরখানের ক্যামব্রিজ হাই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তানভীর হোসেন, হাসানুর রহমান ওরফে রকি ভাই, মো. সজীব মিয়া, মো. এনামুল হক ও মো. ইব্রাহিম। এদের মধ্যে মো. সজীব মিয়া ক্যামব্রিজ হাই স্কুলের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক, মো. ইব্রাহিম এবং মো. এনামুল হক সৃজনশীল কোচিং সেন্টারের শিক্ষক। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর উত্তরখান থানায় প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় এক দিনের রিমান্ড শেষে আসামিদের আদালতে হাজির করে তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট থানার এসআই সাইফুল ইসলাম। আবেদনে বলা হয়, আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা চলমান এসএসসি পরীক্ষার বিভিন্ন বিষয়ের প্রশ্নপত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফাঁস করেছে মর্মে স্বীকার করেছে। জিজ্ঞাসাবাদে হাসানুর রহমান ওরফে রকি ভাই জানায়, সে ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপের বিভিন্ন প্রশ্নফাঁস গ্রুপের অ্যাডমিন। সে প্রতি বিষয়ের জন্য নতুন নতুন গ্রুপ খুলত, যেমন: গণিত পরীক্ষার জন্য Mojja, ইংরেজি পরীক্ষার জন্য Adda। মামলার অপর আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে রকি ভাইয়ের কাছ থেকে প্রশ্নপত্র সংগ্রহ করত এবং স্বল্প সময়ের মধ্যে তারা পরীক্ষার্থীদের কাছে সরবরাহ করত বলে জানায়। আবেদনে আরো বলা হয়, আসামিদের কাছ থেকে পাওয়া মোবাইল ফোন ও ট্যাব বিশেষজ্ঞ পরীক্ষক দ্বারা পরীক্ষা করলে এ বিষয়ে আরো তথ্য পাওয়া যাবে। জিজ্ঞাসাবাদের আসামিরা পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকের কাছে চলমান এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন অবৈধ উপায়ে ফাঁস করত এবং মোটা অঙ্কের টাকা নিতো বলে জানায়। আসামিরা প্রত্যেকে প্রশ্নফাঁসের সাথে জড়িত। তারা জামিন পেলে পুনরায় প্রশ্নফাঁস করে চলমান এসএসসি পরীক্ষার কার্যক্রম ব্যাহত করবে। মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত আসামিদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। অপরদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী মোহাম্মদ ইয়ার খান, মিজান মোল্লা জামিন চেয়ে শুনানি করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। প্রসঙ্গত, রাজধানীর উত্তরখান ও গাজীপুর এলাকা থেকে গত সোমবার ভোরে চার শিক্ষকসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।