৪০ কোটি টাকা আত্মসাৎ: চট্টগ্রামে ২ ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা : চট্টগ্রামে একটি ব্যাংক থেকে ৩৯ কোটি ৬৮ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাতের অভিযোগে দুই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।   সোমবার রাতে কোতোয়ালী থানায় এবিষয়ে মামলা হওয়ার পর পরই নগরীর জাকির হোসেন সড়ক থেকে তাদের ধরা হয় বলে দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-১ এর উপ-পরিচালক লুৎফুল কবির চন্দন জানিয়েছেন।  গ্রেপ্তার দুজন হলেন- নগরীর সদরঘাট এলাকার আইমান এন্টারপ্রাইজের স্বত্তাধিকারী মো. শাহ আলম এবং তার ছেলে ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম পারভেজ আলম।  ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে তাদের দুজনকে আদালতে পাঠানো হয়।  লুৎফুল কবির বলেন, শাহ আলম তার তিন ভাইয়ের স্বাক্ষর জাল করে পৈত্রিক ১১২ দশমিক ৯৭ শতাংশ জমি বন্ধক রেখে বেসরকারি প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেডের খাতুনগঞ্জ শাখা থেকে ৩৯ কোটি ৬৮ লাখ ১৪ হাজার টাকা ঋণ নেন।  “জমি বন্ধক দিয়ে ঋণ নেয়ার বিষয়টি তার ভাইরা কেউই জানতেন না। ২০০৪ সাল থেকে বিভিন্ন সময়ে এই ঋণ নেওয়ার পর তারা তা শোধ করেননি।” এ ঘটনার বিষয়ে অভিযোগ পেয়ে তা অনুসন্ধানের অনুমতি চাইলে দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রধান কার্যালয় থেকে এতে অনুমোদন দেওয়া হয়।  এরপর অনুসন্ধানে অভিযোগের সত্যতা পায় দুদক চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়ের কর্মকর্তারা। পরে প্রধান কার্যালয় থেকে মামলার অনুমতি মেলে।  সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর কোতোয়ালী থানায় দুদকের সহকারী পরিচালক এইচ এম আখতারুজ্জামান বাদি হয়ে মামলাটি করেন।  দুদক কর্মকর্তা লুৎফুল বলেন, ঋণের টাকা আত্মসাৎ এবং জালিয়াতির মাধ্যমে ঋণ গ্রহণের অভিযোগে করা মামলায় শাহ আলম ও পারভেজ আলমকে আসামি করা হয়।  “পরে রাত সাড়ে ১১টার দিকে নগরীর জাকির হোসেন সড়ক থেকে মামলাটির দুই আসামিকে আটক করা হয়। আজ দুপুরে তাদের ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।”