সাভারে দুর্ব্যবহার করায় ১৫ বাস আটকে দিল শিক্ষার্থীরা

66

স্টাফ রিপোর্টার : সাভারে ছয় শিক্ষার্থীর কাছ থেকে হাফ ভাড়া না নিয়ে তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করায় নীলাচল নামে একটি পরিবহন কোম্পানির ১৫টি গাড়ি আটকে দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুর ২টারদিকে সাভারে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বাইশ মাইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

শিক্ষার্থীরা জানান, দুপুরের দিকে মানিকগঞ্জ থেকে বাইশ মাইল এলাকার মির্জা গোলাম হাফিজ কলেজে আসার জন্য ছয় শিক্ষার্থী নীলাচল পরিবহনের বাসে ওঠে। এরমধ্যে বাথুলি এলাকায় ওয়েবিলের চেকার বাসে থাকা জাবি ও গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাফ পাস অনুমোদন করেননি। এতে ওই ছয় কলেজ শিক্ষার্থীরা তাদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়ান। এর জেরে শিক্ষার্থীরা বাইশ মাইল এলাকায় এসে মহাসড়কে চলাচলরত সব বাস আটকে দেন। এতে ১৫টি বাস অবরোধের মুখে পড়ে। পরে পুলিশের মধ্যস্ততায় পরিবহন কর্তৃপক্ষ এসে হাফ পাসের দাবি মেনে নিলে বাসগুলো ছেড়ে দেয় শিক্ষার্থীরা।

মির্জা গোলাম হাফিজ কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক শাখার শিক্ষার্থী ফয়সাল আহমেদ ও আব্দুল আলীম জানান, দুপুরে তারা কলেজে আসার পথে বাথুলিতে থাকা নীলাচল পরিবহনের চেকার তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন ও হাফ পাস কাটবে না বলে জানায়। পরে তারা হাফ পাসের দাবিতে নীলাচল পরিবহনের বাস আটকে দেন।
নীলাচল পরিবহনের ভ্রাম্যমাণ পরিদর্শক ফয়সাল আহমেদ বলেন, আমাদের চেকারদের নির্দেশনা দেওয়া আছে শিক্ষার্থীদের হাফ পাস নেওয়ার। তবুও শিক্ষার্থীদের হাফ পাস না কাটায় ওই চেকারকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। এখন থেকে হাফ পাস নেওয়া হবে।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফরহাদ বিন করিম বলেন, শিক্ষার্থীরা সড়কে নীলাচল পরিবহনের কয়েকটি বাস আটকে দিয়েছিল। পরে মালিকপক্ষ এসে তাদের হাফ পাসের বিষয়ে আশ্বস্ত করলে তারা বাস ছেড়ে দেয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।