মানিকগঞ্জে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী ২৪ বছর পর গ্রেফতার

19

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : মানিকগঞ্জের চাঞ্চল্যকর নবু প্রামানিক হত্যা মামলার দীর্ঘ ২৪ বছর বিভিন্ন ছদ্মবেশে পলাতক যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী মোঃ মজিবর (৬০)কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪। গতকাল রাতে র‌্যাব-৪ মানিকগঞ্জ সিপিসি-৩ এর অভিযানে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার কর হয়।

গ্রেফতারকৃত মজিবর মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার রাজনগর এলাকার বাসিন্দা।মঙ্গলবার সকালে র‌্যাব-৪ মানিকগঞ্জ সিপিসি -৩ এর কোম্পানি কমান্ডার লে কমান্ডার মোহাম্মদ আরিফ হোসেন প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

র‌্যাব জানায়, আসামী মোঃ মজিবর ও ভিকটিম নবু প্রামানিক উভয়ই মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার রাজনগর নারীকুলী গ্রামে বসবাস করত। গত ১৯৯৮ সালের ১৬ নভেম্বর বিকেলে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে নবু প্রামানিক এর ছেলে মোঃ বাদশার সাথে আসামী মোঃ মজিবরের চাচাতো শ্যালক মোঃ বরকতের বিরোধ বাধে। এর জেরে মজিববের স্ত্রী জুলেখা ও নবু প্রামাণিকের স্ত্রী নুর নাহারের কথা-কাটাকাটি ও ঝগড়া হয়। এ সময় নবু প্রামাণিক তাদের থামানো চেষ্টা করে। একপর্যায়ে মজিবর তার কয়েকজন সহযোগী নিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে নবুর ওপর হামলা চালায়। সেখানে মজিবর ভিকটিম নবু প্রামানিক এর মাথার কাঠের বৈঠা দিয়ে সজোরে আঘাত করতে, সাথে সাথে তার মাথার মগজ বের হয়ে সেখানই সে অজ্ঞান হয়ে পরে যায়। স্থানীয়রা সেখান থেকে নবুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় নবুর স্ত্রী বাদী হয়ে সাত জনকে আসামি করে ওইদিনই সদর থানায় একটি মামলা করেন। মামলার পর থেকেই মজিবর আত্মগোপনে চলে যান। গ্রেপ্তার অপর ৬ আসামিও ১৯৯৯ সালে ৩ মাস কারাভোগ শেষে জামিনে বের হয়ে আত্মগোপন করেন। এরপর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মজিবরকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দেন। অপর ৬ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাদেরকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেন।

পরে আদালত সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে মজিবরকে যাবজ্জীবন সাজা প্রদান করেন। র‌্যাব আরো জানান, গ্রেফতার আসামী মজিবরকে মানিকগঞ্জ সদর থানায় পাঠানো হয়েছে।